kalerkantho


জমি কেনা নিয়ে অনিয়ম

রাবি ভিসিসহ চারজনের বিরুদ্ধে তদন্তে রুল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য জমি কেনাসহ বিভিন্ন আর্থিক অনিয়মের অভিযোগে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের  ভিসি, প্রোভিসি, রেজিস্ট্রার ও ট্রেজারারের বিরুদ্ধে তদন্তের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট।

গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি নাঈমা হায়দার ও বিচারপতি আবু তাহের মো. সাইফুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ রুল জারি করেন।

স্বরাষ্ট্রসচিব, দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) চেয়ারম্যান ও পুলিশের মহাপরিদর্শকসহ সংশ্লিষ্টদের চার সপ্তাহের মধ্যে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

একই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আছাদুজ্জামানের করা এক রিট আবেদনের ওপর প্রাথমিক শুনানি শেষে এ আদেশ দেন হাইকোর্ট। রিট আবেদনকারীর পক্ষে আইনজীবী ছিলেন অ্যাডভোকেট এ এম আমিন উদ্দিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল মোখলেসুর রহমান।

‘রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে জমি কেনা নিয়ে নয়ছয়’ শিরোনামে গত ৫ ফেব্রুয়ারি একটি জাতীয় দৈনিকে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এ ছাড়া আরো সংবাদমাধ্যমে ভিসিসহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে আর্থিক অনিয়ম নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এসব প্রতিবেদন যুক্ত করে এ রিট আবেদন করা হয়।

পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘অতিথি নিবাস বানানোর জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ রাজধানীর হাতিরপুল এলাকায় সাড়ে তিন কাঠা জমি কিনেছে। দলিলে এই জমির দাম দেখানো হয়েছে সাড়ে তিন কোটি টাকা।

কিন্তু সিন্ডিকেটে চুক্তিপত্র অনুমোদন করানো হয়েছে ১১ কোটি টাকা। অর্থাৎ প্রতি কাঠা তিন কোটি ১৪ লাখ টাকার কিছু বেশি।


মন্তব্য