kalerkantho


রণজিৎ দাসের চিত্র প্রদর্শনী শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রণজিৎ দাসের চিত্র প্রদর্শনী শুরু

গ্রামের ফেলে আসা দিন, ছেলেবেলা, মায়ের মুখ, দিগন্তবিস্তৃত মাঠ—স্মৃতির নানা বিষয়ের চিত্রকর্ম নিয়ে রাজধানীর উত্তরার গ্যালারি কায়ায় শুরু হয়েছে শিল্পী রণজিৎ দাসের একক চিত্র প্রদর্শনী।

প্রধান অতিথি হিসেবে ‘জার্নি অ্যান্ড ইমেজেস’ শীর্ষক এ প্রদর্শনী গতকাল শনিবার উদ্বোধন করেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ভারতীয় হাইকমিশনের ডেপুটি হাইকমিশনার আদর্শ সোয়াইকা। সম্মানিত অতিথি ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইদুজ্জামান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন কায়ার পরিচালক শিল্পী গৌতম চক্রবর্তী।

সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, ‘রণজিৎ দাস নিরীক্ষাধর্মী কাজ করেছেন। তিনি সব সময় নিজেকে ভেঙেচুরে নতুন করে ক্যানভাসে উপস্থাপন করেন। তাঁর ড্রয়িং, পেইন্টিং আমার ভালো লাগে। তাঁর স্টিল লাইফ ওয়ার্ক আমার খুব পছন্দের। ’

আদর্শ সোয়াইকা বলেন, বাংলাদেশের শিল্পীরা চিত্রকলায় খুব ভালো করছেন। ভারতেও বিভিন্ন প্রদর্শনীতে অংশ নিয়ে তাঁরা সুনাম কুড়িয়েছেন।

গৌতম চক্রবর্তী বলেন, শিল্পী রণজিৎ দাস সাম্প্রতিক সময়ের গুরুত্বপূর্ণ একজন শিল্পী। তাঁর ছবিতে সমসাময়িক জীবনের বাস্তব চিত্র যেমন পাওয়া যায় তেমনি মানুষের দ্বন্দ্বমুখর অবস্থানকেও দেখতে পাওয়া যায়।

রণজিৎ দাস বলেন, ‘গ্রামের জীবনকে ছেড়ে এসে আমরা শহুরে নাগরিক। গ্রাম ছেড়ে শহরে—জীবনের এই ভ্রমণ নানা রকম অভিজ্ঞতা দেয়। তা কখনো মধুময়, কখনো রূঢ়। তবে সব কিছুই আমাদের জীবনের পথচলার অংশ। সেসবই আমি তুলে ধরেছি চিত্রকর্মে। ’

প্রদর্শনী সাজানো হয়েছে ৪২টি শিল্পকর্ম দিয়ে। এসবের মধ্যে ২৭টি পেইন্টিং। সব অ্যাক্রেলিক মাধ্যমে আঁকা। ড্রইং রয়েছে ১১টি। তার দুটি চারকোলে আঁকা। চারটি তেলরঙের চিত্রকর্ম রয়েছে। রণজিৎ দাস কবিতাও লেখেন। কবিতার চরণ ব্যবহার করেছেন কয়েকটি চিত্রকর্মে। প্রদর্শনী চলবে ২৫ মার্চ পর্যন্ত; প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত।

রবীন্দ্রসংগীত সম্মেলন : তিন দিনব্যাপী জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত সম্মেলনের দ্বিতীয় দিন ছিল গতকাল শনিবার। নানা আয়োজনে গতকালও জমজমাট ছিল সম্মেলন। সকাল ৯টায় ছিল সাধারণ বিভাগের চূড়ান্ত প্রতিযোগিতা, বিকেল ৪টায় ছিল প্রতিনিধি সম্মেলন। বিকেল ৫টায় ‘সভ্যতার সংকট ও রবীন্দ্রনাথ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। এতে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ভূইয়া ইকবাল।

সম্মেলনের আজ শেষ দিন। আজ রবিবার সকাল ৯টায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ। সকাল ১০টায় প্রতিনিধি সম্মেলন ও সংগীত প্রশিক্ষণ। বিকেলে থাকছে রবীন্দ্র পদক প্রদান ও গুণীজন সম্মাননা।  

সোমেন চন্দ হত্যা দিবসে উদীচীর পাঠচক্র : প্রগতিশীল কথাসাহিত্যিক, বিপ্লবী ও প্রগতি লেখক সংঘের অন্যতম উদ্যোক্তা সোমেন চন্দের হত্যা দিবস ছিল গত ৮ মার্চ। দিবসটি উপলক্ষে আজ রবিবার পাঠচক্রের আয়োজন করেছে বাংলাদেশ উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী। উদীচী কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে (১৪/২, তোপখানা রোড) পাঠচক্র শুরু হবে সন্ধ্যা ৭টায়।


মন্তব্য