kalerkantho


আধুনিক গ্রন্থাগার ও সংগ্রহশালা নীতিমালা বাস্তবায়ন ও নতুন আইন প্রণয়নের দাবি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



আধুনিক গ্রন্থাগার ও সংগ্রহশালাসংক্রান্ত নতুন আইন প্রণয়ন, জাতীয় গ্রন্থাগার নীতিমালার বাস্তবায়ন এবং ঐতিহ্যবাহী গ্রন্থাগার রক্ষাসহ সরকারের কাছে সাত দফা দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ বেসরকারি গণগ্রন্থাগার সমিতি।

গতকাল শনিবার রাজধানীর শাহবাগে বেগম সুফিয়া কামাল জাতীয় গ্রন্থাগারের সেমিনার কক্ষে আয়োজিত সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভায় এসব দাবি জানানো হয়।

অন্য দাবিগুলো হলো বেসরকারি গ্রন্থাগার, তথ্যকেন্দ্র ও সংগ্রহশালা জরিপ করে মান নির্ণয় করে সরকারিভাবে তা নিবন্ধনের ব্যবস্থা করা; বেসরকারি গ্রন্থাগারের জন্য পরিকল্পিত ও সুষ্ঠুভাবে সরকারি অর্থ, সামগ্রী ও গ্রন্থ বিতরণের ব্যবস্থা করা; বেসরকারি গ্রন্থাগারের জন্য রাজস্ব খাত থেকে নিয়মিত অর্থ বরাদ্দের উদ্যোগ নেওয়া; দেশের প্রতিটি তথ্যকেন্দ্রের সঙ্গে একটি করে গণগ্রন্থাগার প্রতিষ্ঠা করা।

গতকাল সকাল থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন আহমেদকে সভাপতি, আশরাফুল আলম সিদ্দিককে সাধারণ সম্পাদক ও রহমত আ স সাবির খানকে যুগ্ম সম্পাদক করে ৩৯ সদস্যের জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটি গঠন করা হয়।

এর আগে সাধারণ সভায় বিভিন্ন বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন সমিতির উপদেষ্টা ও বিশিষ্ট সংগ্রাহক এ কে এম এনায়েত কবির ও সমিতির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ বেসরকারি গণগ্রন্থাগার সমিতি একটি অরাজনৈতিক, অলাভজনক ও স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান। যা বাংলাদেশের সব বেসরকারি ও স্বাধীন গণগ্রন্থাগার, তথ্যকেন্দ্র ও সংগ্রহশালার প্রতিনিধিত্বকারী জাতীয় প্রতিষ্ঠান হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে।


মন্তব্য