kalerkantho


গাইবান্ধায় বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

আগাখান অ্যাওয়ার্ড ‘ফ্রেন্ডশিপের’ জন্য গৌরবের ব্যাপার

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

১১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেছেন, ২০১৮ সালের মধ্যে সরকার সারা দেশে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করবে। সরকার এই বিদ্যুৎ সেবা বিনা মূল্যে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছে।

কেউ সেখানে ঘুষ-দুর্নীতির আশ্রয় নিলে জনগণকে তা সম্মিলিতভাবে প্রতিরোধ করতে হবে।

গতকাল শুক্রবার গাইবান্ধার ‘ফ্রেন্ডশিপ সেন্টারে’ এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ সব কথা বলেন। ‘ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার’ সম্প্রতি ‘আগাখান অ্যাওয়ার্ড ফর আর্কিটেকচার ২০১৬’ অর্জন করায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। মন্ত্রী বলেন, আগাখান অ্যাওয়ার্ড অর্জন ফ্রেন্ডশিপের জন্য গৌরবের ব্যাপার।

ফ্রেন্ডশিপের নির্বাহী পরিচালক লুনা খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূত মারিও পালমা, সিঙ্গাপুর কনস্যুলেটের কনসাল ডেরেল লাউ, ইউরোপীয় ইউনিয়নের মিনিস্টার এবং হেড অব কো-অপারেশন মারিও রনকনি। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন আগাখান অ্যাওয়ার্ড ফর অর্কিটেকচারের পরিচালক ফারুক দেরা খশানি, স্থপতি কাশেফ মাহবুব চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. শামছুল আযম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল ফারুক প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী বলেন, চড়া সুদে মাইক্রো ক্রেডিটের ব্যবসার সঙ্গে অনেকে জড়িত থাকলেও ফ্রেন্ডশিপের মতো বেসরকারি সংগঠনগুলো দুস্থ-অসহায় মানুষের জন্য সেবামূলক কাজকর্ম চালিয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি ইতিহাস ও সংস্কৃতি রক্ষায় তাদের ভূমিকা প্রশংসনীয়।

ফ্রেন্ডশিপের নির্বাহী পরিচালক রুনা খান জানান, আগাখান অ্যাওয়ার্ড ফর আর্কিটেকচার স্থাপত্য শিল্পে একটি মর্যাদাপূর্ণ পুরস্কার।

গাইবান্ধা ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার ৬৯টি দেশের ৩৪৮ নির্বাচিত প্রকল্পের মধ্যে থেকে এই অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

উল্লেখ্য, ফ্রেন্ডশিপ সেন্টার এমন একটি স্থাপনা, যেটির উচ্চতা মাটির সমান্তরাল। মহাস্থানগড়ের আদলে করা এই স্থাপত্য দেখে মনে হবে, সেটি প্রকৃতির সঙ্গে মিশে গেছে।


মন্তব্য