kalerkantho


সেমিনারে তথ্যমন্ত্রী

সংসদীয় কমিটির বৈঠক উন্মুক্ত হওয়া প্রয়োজন

তথ্য অধিকার আইন হালনাগাদ করার তাগিদ অন্যদের

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



গণতন্ত্রের চর্চা ও অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিত করার জন্য সংসদীয় কমিটির বৈঠক উন্মুক্ত হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মুজাফফর আহমেদ চৌধুরী মিলনায়তনে এক সেমিনারে তিনি বলেছেন, বর্তমান সরকার দেশে গণতন্ত্র চর্চা করার জন্য তথ্য কমিশন, মানবাধিকার কমিশন প্রতিষ্ঠা করেছে। তেমনি মন্ত্রীদের জবাবদিহির জন্য সংসদীয় কমিটি স্থাপন করেছে। কিন্তু এ কমিটির বৈঠক হয় লোকচক্ষুর অন্তরালে। এখানে কী সিদ্ধান্ত হয় তা গণমাধ্যমে যতটুকু জানানো হয়, ততটুকুই প্রকাশ পায়। এ জন্য গণতন্ত্রের চর্চা ও অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিত করার জন্য সংসদীয় কমিটির বৈঠক উন্মুক্ত হওয়া প্রয়োজন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত ‘তথ্য অধিকার আইন ও গভীরতাধর্মী সাংবাদিকতা’ শীর্ষক সেমিনারে অন্য বক্তারা বলেন, অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিত করতে হবে। এ জন্য তথ্য অধিকার আইন হালনাগাদ করার সময় এসেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রধান তথ্য কমিশনার গোলাম রহমান। এ ছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন বিএফইউজে সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, একাত্তর টিভির বার্তা পরিচালক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা প্রমুখ।

গোলাম রহমান বলেন, তথ্য অধিকার আইনটি হয় ২০০৯ সালে। এই আইন হওয়ার সাত বছর পেরিয়ে গেলেও মানুষ সেভাবে আইন সম্পর্কে জানে না। এ জন্য আইনটি সম্পর্কে মানুষকে জানানো প্রয়োজন। মানুষ যত বেশি আইনটি সম্পর্কে জানবে তত বেশি তথ্য পেতে আগ্রহ প্রকাশ করবে। ফলে রাষ্ট্রের বিভিন্ন ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে এবং দুর্নীতি বন্ধ হবে।

অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, তথ্য অধিকারও মানুষের মৌলিক অধিকার। এই অধিকার থেকে বঞ্চিত হলে মানুষের অস্তিত্ব ঝুঁকির মধ্যে পড়ে যাবে। তাই এখন সময় এসেছে এই আইন হালনাগাদ করে সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় নিয়ে আসার।


মন্তব্য