kalerkantho


বরিশালে বিপুল অননুমোদিত ওষুধ জব্দ দুজনকে দণ্ড

বরিশাল অফিস   

১০ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ভ্রাম্যমাণ আদালত বরিশালে ১০ লাখ টাকার অনুমোদনহীন ওষুধ জব্দ করেছে। গত বুধবার রাতে নগরের অক্সফোর্ড মিশন রোডের একটি বহুতল ভবনের ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে এসব ওষুধ জব্দ করা হয়েছে।

পাশাপাশি অনুমোদনহীন এসব ওষুধ মজুদ ও বাজারজাতকরণে জড়িত থাকার দায়ে দুজনকে গ্রেপ্তার করে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে দণ্ড দেওয়া হয়েছে। এপিবিএন, বিএসটিআই ও ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক বরিশালের কার্যালয় যৌথভাবে এ অভিযান পরিচালনা করেছে।

বরিশাল আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সিনিয়র এএসপি আসাদুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাত সাড়ে ৯টা থেকে দুই ঘণ্টাব্যাপী অক্সফোর্ড মিশন রোডের ভাড়াটিয়া জামালের ফ্ল্যাটে অভিযান চালানো হয়। এ সময় অননুমোদিত ওষুধের পাশাপাশি জামালের বাবা সুলতান মুন্সী ও বিক্রয় প্রতিনিধি কাইয়ুমকে আটক করা হয়। পরে তাঁদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে সোপর্দ করা হয়। আটক সুলতান মুন্সীর বাড়ি বরগুনার পাথরঘাটায় এবং কাইয়ুমের বাড়ি বরিশালের কড়াপুরে।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাজমুল হুসেইন খান জানান, অভিযানে প্রায় ১০ লাখ টাকা মূল্যের অনুমোদনহীন ওষুধ জব্দ করা হয়েছে। পাশাপাশি ওষুধ আইন ও বিএসটিআই আইনের পৃথক ধারা অনুযায়ী আটক সুলতান মুন্সীকে দুই লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড ও কাইয়ুমকে দুই মাসের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। জব্দকৃত ওষুধগুলো পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে।

ওষুধ তত্ত্বাবধায়ক তানভীর আহমেদ বলেন, ওই ফ্ল্যাটে দীর্ঘদিন ধরে নকল ওষুধ মজুদ করে বাজারজাত করা হচ্ছিল।


মন্তব্য