kalerkantho


নারী দিবসে ‘আঁধার ভাঙার’ শপথ

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নারী দিবসে ‘আঁধার ভাঙার’ শপথ

নারী-পুরুষ অধিকারে সমতা আনয়নে পদক্ষেপ গ্রহণ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে সোচ্চার হওয়া ও নারীর অধিকার রক্ষায় সমাজের মানসিকতা পরিবর্তনের আহ্বান জানিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশে গতকাল বুধবার পালিত হয়েছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস।

রাজধানীতে এই দিনে ‘আঁধার ভাঙার’ শপথ নিয়েছে নারীরা। দিবসের প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মোমবাতি জ্বালিয়ে এই শপথ নেয় তারা। সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি উপস্থিত নারীদের শপথবাক্য পাঠ করান। ‘আমরাই পারি পারিবারিক নির্যাতন প্রতিরোধ জোট’ এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এতে রাজধানীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নানা বয়স ও পেশার নারী-পুরুষ অংশ নেয়। সমবেতরা রাত ১২টা ১ মিনিটে ‘আগুনের পরশমণি’ গানের কথা ও সুরের সঙ্গে মোমবাতি উঁচিয়ে ধরে আঁধার দূর করার শপথ নেয়। শপথ পাঠ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, কাজী রোজী, জোটের সমন্বয়ক জিনাত আরা হকসহ নারী নির্যাতনবিরোধী বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

নারীর অধিকার রক্ষায় সোচ্চার, নারীর সম্মান, সমমর্যাদা ও অধিকার রক্ষায় একজন ‘চেঞ্জ মেকার’ হিসেবে নিজেকে তৈরি ও কমপক্ষে ১০ জন মানুষকে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সচেতন করার শপথ পাঠ করানো হয়।

অনুষ্ঠানে দীপু মনি বলেন, বাংলাদেশের নারীরা সব ক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছে। সরকারও নারী নির্যাতন প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে।

নারীর অধিকার রক্ষায় সরকার নানামুখী পদক্ষেপ নিয়েছে। সরকারের এসব উদ্যোগ বাস্তবায়নে সবাইকে সহযোগিতা করতে হবে। বাল্যবিবাহ আইন নিয়ে অনেকে সমালোচনা করছে। এই আইন বাস্তবায়নে সরকারকে সহযোগিতা দিতে হবে।

নারী দিবস উপলক্ষে কেন্দ্রীয় খেলাঘর আসর গতকাল এক সংবাদ সম্মেলনে শিশুহত্যাসহ সব নির্যাতন-নিপীড়ন বন্ধ করে শিশুর প্রতি মানবিক হওয়ার আহ্বান জানায়।

দিবসটি উপলক্ষে রাজধানীর কলাবাগান মাঠে ফ্রিডম স্যানিটারি ন্যাপকিন আয়োজন করে ‘ফ্রিডম ওমেন’স কার্নিভাল ২০১৭’। এই আয়োজনে যোগ দেয় প্রায় পাঁচ হাজার নারী। দিনব্যাপী নানা আয়োজনে অনুষ্ঠানটি নারীদের অন্য রকম এক মিলনমেলায় রূপ নেয়।

আন্তর্জাতিক নারী দিবসে নানা দাবিতে রাজধানীতে মশাল মিছিল করেছে নারী সংহতি। নারীবাদী সংগঠনটির ১২তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭-এর বিশেষ বিধান ১৯ নম্বর ধারা বাতিল এবং পাড়া-মহল্লাসহ সর্বত্র ডে কেয়ার প্রতিষ্ঠার দাবি তুলে ধরা হয়।

এর আগে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন তাসলিমা আখতার। সমাবেশ পরিচালনা করেন সাংগঠনিক সম্পাদক জান্নাতুল মরিয়ম। সমাবেশে বক্তব্য দেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক অপরাজিতা চন্দ ও প্রচার-প্রকাশনা সম্পাদক কানিজ ফাতেমা।

এদিকে নারী দিবস উপলক্ষে গতকাল বিকেলে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আলোচনাসভার আয়োজন করে জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল। সংগঠনটির সম্পাদক ফয়জুল হাকিমের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় বক্তব্য দেন দীপা মল্লিক, সুরাইয়া তাসনিম, জরিনা খাতুন, আলো বেগম, লাকি, ফয়সাল মাহমুদ, মাসুম খান প্রমুখ।


মন্তব্য