kalerkantho


শাহজালালে স্বর্ণের ৩টি বার ও বিপুল সিগারেট আটক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বর্ণের তিনটি বার ও বিপুল সিগারেট আটক করা হয়েছে। শুল্ক গোয়েন্দারা মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ও গতকাল বুধবার সকালে পৃথক পৃথক ফ্লাইটে আসা এসব পণ্য আটক করেছে।

গতকাল সকালে বিমানবন্দরে মালয়েশিয়া থেকে আসা ইউএস বাংলা ইঝ৩১৪ ফ্লাইটের এক যাত্রীর শরীরের বিশেষ স্থানে লুকানো তিনটি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় সানাউল্লাহ নামের ওই যাত্রীকে। তার বাড়ি কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে।

সূত্র জানায়, গতকাল সকালে ইউএস বাংলার ফ্লাইটটি অবতরণের পর কাস্টমস হলের গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার পর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দারা সানাউল্লাহকে আটক করে। পরে মেটাল ডিটেক্টরে তার পেটে স্বর্ণ থাকার সিগনাল পাওয়া যায়। পরে বিমানবন্দরসংলগ্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে এক্স-রে করে স্বর্ণের অস্তিত্ব সম্পর্কে নিশ্চিত হয় গোয়েন্দারা। পরে সে টয়লেটে গিয়ে পায়ুপথ দিয়ে একে একে ৩০০ গ্রাম ওজনের তিনটি স্বর্ণের বার বের করে আনে।

এদিকে মঙ্গলবার রাতে বিমানবন্দরে অভিযান চালিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ এক লাখ ৫৫ হাজার ৬০০ শলাকা বিদেশি সিগারেট আটক করে গোয়েন্দারা। আটককৃত সিগারেটগুলো মোট ১২টি ব্যাগেজে করে আনা হয়।

এর মধ্যে কুয়েত এয়ারলাইনসের ফ্লাইট কেইউ ২৮৩ এ আগত যাত্রী সেলিম মিয়ার কাছ থেকে ২২৩ কার্টন সিগারেট আটক করা হয়। আরো ৫৫৫ কার্টন সিগারেট ব্যাগেজ বেল্টে পরিত্যক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

জানা গেছে, আটককৃত লাগেজগুলো মধ্যপ্রাচ্য থেকে এমিরেটস, এয়ার আরাবিয়া ও গালফ এয়ারের বিভিন্ন ফ্লাইটে মঙ্গলবার রাতের বিভিন্ন সময়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসে। আটককৃত সিগারেটের মধ্যে ইউএসএর ৩০৩, ইউকের বেনসন অ্যান্ড হেজেস ও ৫৫৫, সুইজারল্যান্ডসের ডানহিল ও কোরিয়ার ইজি ব্র্যান্ডের। শুল্কসহ এসব সিগারেটের মূল্য প্রায় ৪৭ লাখ টাকা।

এ ছাড়া কলকাতা থেকে আসা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের বিজি০৯৬ ফ্লাইটে আগত দুই যাত্রীর কাছ থেকে ২০৭ পিস উন্নতমানের ভারতীয় শাড়ি আটক করা হয়। শুল্ক করসহ আটককৃত শাড়ির মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। এগুলোও পরিত্যক্ত অবস্থায় লাগেজ বেল্ট থেকে উদ্ধার করা হয়। লাগেজ ট্যাগ দেখে দায়ীদের শনাক্তের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য