kalerkantho


সংসদে সাধারণ আলোচনা

উন্নয়নের জন্যই হাসিনাকে আবার বিজয়ী করতে হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা বলেছেন, জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠানে সংবিধানের বাইরে যাওয়ার ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও নেই। সংবিধান অনুযায়ী নির্দিষ্ট সময়ে শেখ হাসিনার অধীনেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

আগুনসন্ত্রাসী খালেদা জিয়ার দুষ্কর্মের জবাব দিতে ও দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতির ধারাবাহিকতা রক্ষায় আবারও শেখ হাসিনাকে বিজয়ী করতে হবে।

গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রথমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী এবং পরে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনায় অংশ নেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, হুইপ মাহবুব আরা গিনি, সরকারি দলের ছবি বিশ্বাস, বেগম মাহজামিন খালেদ, পংকজ দেবনাথ, তাজুল ইসলাম, গোলাম মোস্তফা বিশ্বাস ও জেবুন্নেসা হক, ওয়ার্কার্স পার্টির অ্যাডভোকেট মোস্তফা লুত্ফুল্লাহ, স্বতন্ত্র সদস্য আবদুল মতিন এবং বিরোধী দল জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও এলজিআরডি প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘স্বাধীনতার মহানায়ক হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু, আর উন্নয়ন-অগ্রগতির মহানায়ক হচ্ছেন তাঁর কন্যা শেখ হাসিনা। ’ ড. ইউনূসের সমালোচনা করে তিনি বলেন, ‘একজনকে ঠকিয়ে এই ব্যক্তিকে গ্রামীণফোনের লাইসেন্স দেওয়া ছিল আমাদের বড় ভুল। এখান থেকে টাকা নিয়ে দেশকে তিনি প্রতিদিন ঠকিয়ে যাচ্ছেন। এদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন হয়ে গেছে। ’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সত্যিকারভাবেই দেশকে বদলে দিয়েছেন।

প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা বলেন, বাংলাদেশ আর তলাবিহীন ঝুড়ি নয়, উপচে পড়া দেশ।

দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি দেখে বিস্মিত বিশ্বনেতারা বাংলাদেশের কাছে কারণ জানতে চান।


মন্তব্য