kalerkantho


বরিশালে সম্মাননা ২৩ গুণীজনকে

বরিশাল অফিস   

৯ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



বরিশালে সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘সমন্বয় পরিষদ’-এর তিন দশক পূর্তি উৎসব উপলক্ষে ২৩ গুণীজনকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে, যাঁরা সংগঠনের শুরু থেকে বিভিন্ন সময় সভাপতি ও সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন, তাঁদের মধ্যে পাঁচজনকে মরণোত্তর সম্মাননা দেওয়া হয়।

মরণোত্তর সম্মাননাপ্রাপ্তরা হলেন সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের প্রয়াত সভাপতি সেলিম আহমেদ, ভাষাসৈনিক মোশারফ হোসেন নান্নু ও মাকসুদ আলী খান বাদল এবং সাধারণ সম্পাদক মুনির হোসেন ও এস এম জামান।

অন্য ১৩ জন হলেন সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের মধ্যে বদিউর রহমান, শাহ নেওয়াজ, মিন্টু বসু, এনায়েত হোসেন চৌধুরী, সৈয়দ গোলাম মাহাবুব, সৈয়দ দুলাল, শান্তি দাস, কাজল ঘোষ, অ্যাডভোকেট নজরুল ইসলাম চুন্নু, পংকজ রায় চৌধুরী, সামসুল আলম, সাইফুর রহমান মিরন, জগলুল হায়দার শাহীন, শুভংকর চক্রবর্তী, নিয়াজ মাহামুদ খান, এস এম ইকবাল ও মিজানুর রহমান।

চলতি বছরের ১ মার্চ শুরু হয় সাংস্কৃতিক সংগঠন সমন্বয় পরিষদের তিন দশক পূর্তি উৎসব। সাত দিনব্যাপী ওই অনুষ্ঠানের মঙ্গলবার ছিল সমাপনী অনুষ্ঠান। সমাপনী অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশনের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ঝুনা চৌধুরী। সমাপনী অনুষ্ঠানে সমন্বয় পরিষদ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে যাঁরা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে সংগঠনকে এগিয়ে নিয়ে গেছেন তাঁদের ২৩ জনকে সম্মাননা ক্রেস্ট ও উত্তরীয় প্রদান করা হয়েছে।

অশ্বিনী কুমার হলে অনুষ্ঠানে সমন্বয় পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট এস এম ইকবালের সভাপতিত্বে আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্কৃতিজন অ্যাডভোকেট মানবেন্দ্র বটব্যাল। আবৃত্তি পরিবেশন করেন নিখিল সেন, কাজল ঘোষ ও আজমল হোসেন লাবু। পরে গণশিল্পী সংস্থার পরিবেশনায় সংগীতানুষ্ঠানে গান পরিবেশন করেন অধ্যাপিকা দিপ্তী রানী ঘোষ, বিনয় হালদার, সঞ্জয় হালদার, সাঈদ পান্থ, বাসুদেব শর্মা, পীযুষ পাল ও পূর্বা সরকার। পরে খেলাঘরের পরিবেশনায় নৃত্য ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের রসকসের পরিবেশনায় গম্ভীরা গান পরিবেশিত হয়ে।


মন্তব্য