kalerkantho


হত্যাচেষ্টা মামলা

আজ নারী দিবসে রায় পাচ্ছেন সেই খাদিজা

সিলেট অফিস   

৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



পাঁচ মাস আগে সিলেটে কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছিল বখাটে ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলম। আজ বুধবার আন্তর্জাতিক নারী দিবসে ঘোষণা হতে যাচ্ছে সেই আলোচিত হত্যাচেষ্টা মামলার রায়।

সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট মফুর আলী জানান, সকাল ১১টার দিকে রায় ঘোষণা হতে পারে। ইতিমধ্যে রায় ঘোষণার সব প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। বিচারক এই মামলার রায় বাংলায় লিখবেন বলেও পিপি জানান।

অ্যাডভোকেট মফুর আলী বলেন, ‘যুক্তিতর্কে আমরা আসামির অপরাধ প্রমাণে সক্ষম হয়েছি। আমরা আশাবাদী রায়ে আসামির সর্বোচ্চ শাস্তি হবে। ’

গত ২৬ ফেব্রুয়ারি খাদিজার সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে এই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়। সেদিন খাদিজা আদালতের কাছে হামলাকারী বদরুলের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেন। পরে ৫ মার্চ মামলায় দুই পক্ষের আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক শেষে রায়ের জন্য আজকের দিন ধার্য করেন বিচারক।

গত ৩ অক্টোবর সিলেটের এমসি কলেজ কেন্দ্রে ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের পরীক্ষা শেষে বের হয়ে হামলার শিকার হন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক (পাস কোর্স) দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী খাদিজা।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহসম্পাদক বদরুল আলম তাঁকে চাপাতি দিয়ে উপর্যুপরি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। তাঁকে প্রথমে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়া হয়। ঢাকায় স্কয়ার হাসপাতালে প্রায় দুই মাস চিকিৎসার পর চিকিৎসকদের পরামর্শে তাঁকে সাভারের সিআরপিতে নেওয়া হয়। সেখানে প্রায় তিন মাস চিকিৎসা শেষে অনেকটা সুস্থ হয়ে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি সিলেটের বাড়িতে ফিরে আসেন খাদিজা।

খাদিজার ওপর হামলাকারী বদরুলকে ঘটনাস্থল থেকে ধরে তখনই পুলিশে দেয় জনতা। ঘটনার পরদিন খাদিজার চাচা আবদুল কুদ্দুস বাদী হয়ে বদরুলকে একমাত্র আসামি করে শাহপরান থানায় মামলা করেন। বদরুলকে বিশ্ববিদ্যালয় ও সংগঠন থেকে বহিষ্কার করা হয়।


মন্তব্য