kalerkantho


ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ পালিত

‘বিএনপি ক্ষমতায় গেলে ইতিহাস দখল করে’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



‘বিএনপি ক্ষমতায় গেলে ইতিহাস দখল করে’

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে গতকাল ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। ছবি : কালের কণ্ঠ

রাজধানীসহ দেশজুড়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনসহ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক সাতই মার্চ পালিত হয়েছে। গতকাল সকালে আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন ধানমণ্ডিতে বঙ্গবন্ধু ভবনের সামনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করে।

সকাল ৭টায় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় নেতারা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। ক্ষমতাসীন ১৪ দলীয় জোটের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। আওয়ামী লীগের সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠন মহিলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুব মহিলা লীগ, ছাত্রলীগও শ্রদ্ধা নিবেদন করে। বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় মন্ত্রিসভার সদস্য ও আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

সাতই মার্চ উপলক্ষে গতকাল ভোর সাড়ে ৬টায় বঙ্গবন্ধু ভবন ও বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

শ্রদ্ধা নিবেদনের পর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি দিবসটি (সাতই মার্চ) পালন করে না। তারা (বিএনপি) ইতিহাস স্বীকার করে না। তারা ক্ষমতায় গেলে ইতিহাস জবরদখল করে। ’

পত্রিকায় প্রকাশিত জিয়াউর রহমানের একটি লেখার উদ্ধৃতি দিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বলেন, ‘তিনি লিখেছিলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের মধ্য দিয়ে স্বাধীনতার সবুজ সংকেত পেয়েছিলেন।

কিন্তু আজ তাঁর দল বিএনপি এই দিবসটি স্বীকার করে না। ’

দিবসটি উপলক্ষে কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে বঙ্গবন্ধুর সাতই মার্চের ভাষণ ও স্বাধীনতার ঘোষণা শীর্ষক একক বক্তৃতানুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে স্বাগত ভাষণ দেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান। একক বক্তৃতা দেন ইতিহাসবিদ ড. ফিরোজ মাহমুদ। সভাপতিত্ব করেন ব্যারিস্টার এম আমীর-উল ইসলাম। সভায় বক্তারা বলেন, বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা এক ও অবিচ্ছেদ্য বিষয়। স্বাধীনতার ঘোষণা বঙ্গবন্ধুর কাছে  ছিল অনিবার্য। জাতীয় স্বাধীনতার দিকে তিনি জনগণকে প্রস্তুত করেছিলেন।


মন্তব্য