kalerkantho


খুলনাকে পাটের নগরী গড়ার অঙ্গীকার

খুলনা অফিস   

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



নানা আয়োজনে খুলনায় গতকাল সোমবার পালিত হলো জাতীয় পাট দিবস। আয়োজনের মধ্যে ছিল শোভাযাত্রা, আলোচনাসভা, পাটপণ্য প্রদর্শনী, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

এ ছাড়া খুলনাকে পাটের নগরী হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকারও করা হয়।

‘সোনালি আঁশের সোনার দেশ, পাটপণ্যের বাংলাদেশ’ প্রতিপাদ্য নিয়ে সকালে জেলা প্রশাসন ও পাট অধিদপ্তরের যৌথ আয়োজনে শহীদ হাদিস পার্ক থেকে শোভাযাত্রা বের করা হয়। পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে হয় আলোচনাসভা। সেখানে বক্তারা বলেন, পাটের সোনালি দিন ফিরিয়ে আনতে বর্তমান সরকার বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে। গবেষণায় পাটের জন্মরহস্য উদ্ঘাটন একটি বড় সাফল্য। ফলে পাটশিল্পে অপার সম্ভাবনার দ্বার উন্মোচিত হয়েছে। পাটের সুদিন ফিরিয়ে আনতে পাটপণ্যের ব্যবহার বহুবিধ করতে হবে। পাটশিল্পকে আধুনিকায়ন করে খুলনাকে পাটের নগরী হিসেবে গড়ে তোলার অঙ্গীকারও করেন বক্তারা।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. জাহাঙ্গীর হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান।

বক্তব্য দেন বাংলাদেশ জুটমিলস খুলনা অঞ্চলের সভাপতি শফিকুল ইসলাম, ক্রিসেন্ট জুটমিলের উপ-মহাব্যবস্থাপক আবুল কালাম হাজারী, প্লাটিনামের প্রকল্প প্রধান বনিজ উদ্দিন মিয়া, খালিশপুর মিরের প্রকল্প প্রধান ড. জুলফিকার, বাংলাদেশ জুটমিলস অ্যাসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান শেখ সৈয়দ আলী প্রমুখ।


মন্তব্য