kalerkantho


মনে রাখারও কৌশল আছে

৭ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



মনে রাখারও কৌশল আছে

লিখে রাখা : যেকোনো বিষয় লিখে রাখলে তা সহজেই মনে রাখা যায়। গবেষকরা বলছেন, এটি আত্মস্থ করার সবচেয়ে কার্যকর উপায়।

যাদের নিয়মিত নানা বিষয় লিখে রাখার অভ্যাস রয়েছে, তাদের মনে রাখা অনেক সহজ হয়ে যায়। এ জন্য অবশ্যই কাগজ-কলম বা পেনসিল ব্যবহার করে লিখতে হবে। কি-বোর্ডে টাইপ করলে এ সুবিধা পাওয়া যাবে না।

বিরতি নিন : আপনার যদি বিরতি না নিয়ে একটানা পড়াশোনা করার অভ্যাস থাকে তাহলে তা বাদ দিন। কারণ একটানা কোনো বিষয়ে মনোযোগ থাকে না। এতে মস্তিষ্কেও সহজে তথ্য প্রবেশ করে না। এমনকি পাঁচ মিনিটের বিরতিও কোনো বিষয় স্মৃতিশক্তিতে ধারণ করতে সহায়তা করে।

তথ্যগুলো বিভক্ত করুন : একসঙ্গে বিশাল আকারের তথ্য আত্মস্থ করার বদলে তা ছোট ছোট ভাগ করে নেওয়া ভালো। পরে সবগুলো ভাগ আত্মস্থ হলে জোড়া লাগিয়ে নিলেই হলো।

মেমোরি রুম : মনের ভেতর একটি মেমোরি রুম তৈরির চেষ্টা করুন। এটি আপনাকে সব বিষয় মনে রাখতে সহায়তা করবে। এ জন্য গুরুত্ব দিয়ে পর্যাপ্ত মনঃসংযোগ প্রয়োজন হবে। মনের ভেতর একটি আলাদা স্থান তৈরি করুন, কেবল যা-যা মনে রাখতে চান, সেগুলোর জন্য। এরপর সেখানে প্রয়োজনীয় তথ্য পাঠান এবং প্রয়োজনমতো বের করে আনুন।

আবেগগত সম্পর্ক : যেকোনো বিষয়ের সঙ্গে যখন আবেগ যুক্ত হয়ে যায়, তখন তা সহজেই আত্মস্থ হয়। এটি পরবর্তী সময়ে মনে করাও সহজ হয়। এ কারণে কোনো বিষয় মনে রাখতে চাইলে সে বিষয়টির সঙ্গে আপনার আবেগগত বিষয় খুঁজে বের করুন। গড়ে তুলুন আবেগের বন্ধন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অবলম্বনে

ওমর শরীফ পল্লব


মন্তব্য