kalerkantho


শাজনীন হত্যা মামলা

রিভিউ আবেদন খারিজ, শহীদের মৃত্যুদণ্ড বহাল

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রিভিউ আবেদন খারিজ, শহীদের মৃত্যুদণ্ড বহাল

ট্রান্সকম গ্রুপের চেয়ারম্যান লতিফুর রহমানের মেয়ে শাজনীন তাসনিম রহমানকে ধর্ষণ ও হত্যা মামলায় গৃহভৃত্য শহীদুল ইসলাম শহীদের মৃত্যুদণ্ডের রায় পুনর্বিবেচনা চেয়ে করা রিভিউ আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। ফলে মামলার একমাত্র আসামি শহীদের মৃত্যুদণ্ড বহাল থাকল।

প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এস কে) সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের তিন সদস্যের বেঞ্চ গতকাল রবিবার এই আদেশ দেন।

এখন রিভিউ আবেদন খারিজের আদেশ কারাগারে যাবে। এরপর শহীদ প্রাণভিক্ষা চেয়ে রাষ্ট্রপতির কাছে আবেদন করার সুযোগ পাবে।

প্রসঙ্গত, গুলশানে নিজ বাড়িতে ১৯৯৮ সালের ২৩ এপ্রিল রাতে খুন হন শাজনীন তাসনিম রহমান। পরদিন শাজনীনের বাবা লতিফুর রহমান গুলশান থানায় মামলা করেন। এ ছাড়া একই বছরের ৪ সেপ্টেম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে পৃথক একটি (ধর্ষণ ও হত্যা) মামলা করে সিআইডি। দুটি মামলায়ই আদালত অভিযোগ গঠন করেন। এর মধ্যে দ্বিতীয় মামলায় ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত ২০০৩ সালের ২ সেপ্টেম্বর রায় ঘোষণা করেন। রায়ে শাজনীনকে ধর্ষণ ও খুনের পরিকল্পনা এবং সহযোগিতার দায়ে ছয় আসামিকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়।

এরপর বিচারিক আদালতের রায়ের পর মৃত্যুদণ্ড অনুমোদনের (ডেথ রেফারেন্স) জন্য মামলাটি হাইকোর্টে পাঠানো হয়। একই সঙ্গে কারাবন্দি আসামিরা আপিল করে। হাইকোর্ট ২০০৬ সালের ১০ জুলাই এক রায়ে কাঠমিস্ত্রি শনিরাম মণ্ডলকে খালাস দেন। অন্য পাঁচজনের মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখেন। হাইকোর্টের এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিলের অনুমতি চেয়ে আবেদন করে আসামিরা। গত বছর ২ আগস্ট আপিল বিভাগ এই মামলায় শহীদুলের মৃত্যুদণ্ড বহাল রেখে অন্য চারজনকে খালাস দেন।


মন্তব্য