kalerkantho


বিজিএমইএ নেতা জানালেন

নতুন ভবনের জন্য উত্তরায় জায়গা পছন্দ

ভবন ভাঙতে ৩ বছর সময় চাওয়া হবে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ভবন ভাঙাসংক্রান্ত সর্বোচ্চ আদালতের রায় মাথা পেতে নিয়েছে তৈরি পোশাক খাতের ব্যবসায়ীদের সংগঠন বিজিএমইএ। নতুন ভবন নির্মাণ করার জন্য রাজধানীর উত্তরায় একটি জায়গাও এরই মধ্যে পছন্দ করে রাখা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বিজিএমইএর শীর্ষস্থানীয় এক নেতা।

তবে ভবন ভাঙার জন্য বিজিএমইএ তিন বছর সময় চেয়ে আগামী বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগে লিখিত আবেদন করবে বলে জানা গেছে।

ভবন রক্ষার চূড়ান্ত আইনি লড়াইয়ে হেরে যাওয়ার পর গতকাল রবিবার বিজিএমইএর সহসভাপতি মোহাম্মদ নাসির জানান, আদালতের রায় তাঁরা মাথা পেতে নিয়েছেন। আদালতের আদেশ পালন করা হবে। তবে এত বড় একটি বিশাল ভবন ভাঙতে সময়ের প্রয়োজন। তাই আগামী বৃহস্পতিবার তিন বছর সময় চেয়ে আদালতে আবেদন করবে বিজিএমইএ। বিজিএমইএর নতুন ভবন কোথায় হবে জানতে চাইলে তিনি কালের কণ্ঠকে বলেন, সম্ভাব্য কয়েকটি স্থান দেখা হয়েছে। এর মধ্যে উত্তরার একটি জায়গা তাঁদের পছন্দ।

রাজধানীর কারওয়ান বাজারসংলগ্ন বেগুনবাড়ী-হাতিরঝিল প্রকল্পে বেগুনবাড়ী খালের ওপর অবস্থিত বহুতল ভবন ‘বিজিএমইএ কমপ্লেক্স’ ভাঙতেই হচ্ছে। ওই ভবন ভাঙাসংক্রান্ত আপিল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে বিজিএমইএর করা আবেদন গতকাল খারিজ করে দিয়েছেন দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগ।

তবে কত দিনের মধ্যে ভবন ভাঙতে হবে সে বিষয়ে আদেশ দেওয়ার জন্য আগামী ৯ মার্চ দিন ধার্য করেছেন আদালত। ফলে উচ্চ আদালতের রায়ে ‘হাতিরঝিল প্রকল্পে একটি ক্যান্সারের মতো’ বলে উল্লেখ করা ভবনটি ভাঙা এখন কেবল সময়ের ব্যাপার। তবে রিভিউ আবেদন খারিজ হওয়ার পরও ভবন ভাঙতে সময় চেয়ে আবেদন জানায় বিজিএমইএ। আদালত বৃহস্পতিবারের মধ্যে লিখিতভাবে আবেদন করতে বলেছেন।


মন্তব্য