kalerkantho


চলে গেলেন বাংলাদেশের বিদেশি বন্ধু শাহাবুদ্দিন

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

৫ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



ভারতের সাবেক কূটনীতিক ও লোকসভার সাবেক সদস্য সৈয়দ শাহাবুদ্দিন মারা গেছেন। দীর্ঘ রোগ ভোগের পর গতকাল শনিবার সকালে রাজধানী দিল্লির কাছে নয়দা শহরের একটি হাসপাতালে তিনি মারা যান। তাঁর বয়স হয়েছিল ৮২ বছর। তিনি একসময় অল ইন্ডিয়া মুসলিম মাজলিসে মুশাওয়ারাতের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন।

সৈয়দ শাহাবুদ্দিন ষাটের দশকে বাংলাদেশ সৃষ্টির পেছনে লবি হিসেবে কাজ করেন। ভারতে বাবরি মসজিদ ধ্বংসের বিরোধিতা এবং শাহ বানু মামলার সংশ্লিষ্টতার কারণেও তিনি বিশেষভাবে পরিচিত।

শাহাবুদ্দিন ১৯৫৮ সালে ইন্ডিয়ান ফরেন সার্ভিসে (আইএফএস) অফিসার হিসেবে যোগ দেন। তবে রাজনীতিতে আগ্রহ থাকায় ১৯৭০ সালে তিনি ফরেন সার্ভিসের চাকরি থেকে ইস্তফা দেন। তিনি ১৯৩৫ সালে ঝাড়খণ্ড রাজ্যের রাজধানী রাঁচিতে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বিহারের কিশানগঞ্জ থেকে তিনবার লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হন। বাবরি মসজিদ ধ্বংসের বিরোধিতা এবং শাহ বানু ইস্যুতে জড়ানোর কারণে তাঁর নানা সমালোচনা থাকলেও তিনি কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে বাম রাজনীতির চর্চা করতেন।

তিনি নিজেকে সমাজতন্ত্রী হিসেবে পরিচয় দিতে গর্ববোধ করতেন।

মৃত্যুকালে শাহাবুদ্দিন স্ত্রী ও চার মেয়ে রেখে গেছেন। গতকালই তাঁকে স্থানীয় পাঁজপিরান কবরস্থানে দাফন করা হয়। তাঁর জানাজায় ভারতের খ্যাতিমান মুসলিম নেতারা অংশ নেন। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও সাবেক আইএফএস অফিসার হামিদ আনসারি, মণিপুরের গভর্নর নাজমা হেপতুল্লাহ ও বিজেপি নেতা সুব্রামানিয়ান স্বামী।

সুত্র : ইন্ডিয়া টুডে।


মন্তব্য