kalerkantho


৪০ শিল্পীর চিত্রকর্ম নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ’ প্রদর্শনী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



৪০ শিল্পীর চিত্রকর্ম নিয়ে ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ’ প্রদর্শনী

বাংলাদেশের প্রথিতযশা ৪০ জন শিল্পীর ১০০টি শিল্পকর্ম নিয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ও ‘সমতট সোনারগাঁ’ যৌথভাবে আয়োজন করেছে ‘বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ’ শীর্ষক চিত্র প্রদর্শনী। শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালার ৬ নম্বর গ্যালারিতে আজ শনিবার এ প্রদর্শনী শুরু হয়ে চলবে ১৭ মার্চ পর্যন্ত।

গতকাল শুক্রবার বিকেলে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা ভবনের সেমিনার হলে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

যাঁদের শিল্পকর্ম নিয়ে প্রদর্শনী তাঁরা হলেন শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী, আবু তাহের, সমরজিৎ রায় চৌধুরী, হাশেম খান, ধীরাজ চৌধুরী, সৈয়দ জাহাঙ্গীর, মনিরুল ইসলাম, শাহাবুদ্দিন আহম্মেদ, অলকেশ ঘোষ, বীরেণ সোম, রেজাউল করিম, আবদুর শাকুর শাহ, আবদুল মান্নান, জামাল আহমেদ, রণজিৎ দাস, মুহাম্মদ ইউনুস, আহমেদ শামসুদ্দোহা, শেখ আফজাল, মো. মনিরুজ্জামান, নিসার হোসেন, মুহাম্মদ ইকবাল, রাব্বানী শামীম, রাফী হক, আনিসুজ্জামান, ফরিদা জামান, রোকেয়া সুলতানা, শুভ্রানা শামীম, গুলশান হোসেন, বিপাশা হায়াত, ছামিনা নাফিজ, সর্বরী রায় চৌধুরী, আলপ্তগীন তুষার, আব্দুস সাত্তার তৌফিক, মোহাম্মদ কামালুদ্দিন, দুলাল চন্দ্র গাইন, শহীদ কাজী, সুমন ওয়াহিদ, প্রদ্যোত কুমার দাস, আব্দুল মোমেন মিল্টন ও মাহমুদুল হাসান সোহাগ।

আজ সন্ধ্যায় শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করবেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন সংসদ সদস্য মঈন উদ্দীন খান বাদল, বরেণ্য শিল্পী হাশেম খান, অধ্যাপক মুনতাসীর মামুন এবং বীমা ব্যক্তিত্ব নাসির এ চৌধুরী।

‘পাটের ক্যানভাসে বাংলাদেশ’ প্রদর্শনী : বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের চিত্রশালায় শুরু হলো ‘পাটের ক্যানভাসে বাংলাদেশ’ শীর্ষক চিত্রকর্ম প্রদর্শনী। গতকাল বিকেলে তিন দিনের এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন ভাস্কর হামিদুজ্জামান খান। প্রদর্শনীতে আরো উপস্থিত ছিলেন অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

প্রদর্শনীতে দেশের ১৮ তরুণ শিল্পীর ৩৫টি চিত্রকর্ম স্থান পেয়েছে। পাশাপাশি স্কুল পড়ুয়া ৩৬ শিশুশিল্পীর চিত্রকর্মও প্রদর্শিত হচ্ছে।

চটের ওপর আঁকা চিত্রকর্মগুলোতে বাংলাদেশের প্রকৃতি, ইতিহাস, ঐতিহ্যসহ নানা বিষয় উঠে এসেছে। সরকার ঘোষিত জাতীয় পাট দিবসকে সামনে রেখে এ চিত্রকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে পাটের লড়াই নামক সংগঠন।

ভাস্কর হামিদুজ্জামান খান বলেন, পাটের ওপর এ ধরনের আয়োজন বাংলাদেশে এই প্রথম। এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে শিল্পকলায় পাটের ব্যবহারের যে সেতুবন্ধ তৈরি হলো, তা বাংলাদেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যাবে। অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেন, তরুণরা সব সময়ই নতুন কিছু করে। এটি তরুণদের মধ্যে পাটপণ্যকে জনপ্রিয় করতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা এবং আগামী ৫ মার্চ পর্যন্ত প্রদর্শনীটি সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।


মন্তব্য