kalerkantho


সাত মাস নিখোঁজ থাকা হুম্মামকে নিয়ে রহস্য

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



সাত মাস নিখোঁজ থাকা হুম্মামকে নিয়ে রহস্য

মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হওয়া সাবেক বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের (সাকা) চৌধুরীর ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরীর সাত মাস নিখোঁজ থাকা নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে অজ্ঞাতপরিচয় লোকজন তাঁকে ধানমণ্ডি এলাকায় রেখে যায়।

এরপর পরিবারের লোকজন তাঁকে উদ্ধার করে ধানমণ্ডির বাসায় নিয়ে যায়। তাঁর পারিবারিক সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

হুমামের চাচা ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াসউদ্দিন কাদের চৌধুরী কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার ভোরের দিকে ধানমণ্ডি লেকের পাড়সংলগ্ন মসজিদের সামনে কে বা কারা হুম্মামকে রেখে যায়। এরপর পরিবারের লোকজন সেখান থেকে তাকে বাসায় নিয়ে আসে। হুমামের শারীরিক অবস্থা ভালো। ধানমণ্ডি এলাকায় কারা তাকে নামিয়ে দিয়ে গেছে সে ব্যাপারে আমরা কিছু জানি না। ’

বাসায় ফেরার পর গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই সামাজিক মাধ্যমের কল্যাণে হুম্মাম কাদের চৌধুরীর বেশ কিছু ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়ে। তবে হুম্মাম কোথায় ছিলেন, সে বিষয়ে এখন পর্যন্ত কেউ কোনো তথ্য দেয়নি। যোগাযোগ করা হলে পরিবারের মতো এ বিষয়ে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকেও কোনো কিছু জানা যায়নি।

গত বছরের ৫ আগস্ট একটি মামলায় হাজিরা দেওয়ার পর ঢাকার আদালতপাড়া থেকে রহস্যজনকভাবে ‘উধাও’ হন হুমাম কাদের চৌধুরী। এর পর থেকে বিএনপি ও সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর পরিবার থেকে অভিযোগ করা হচ্ছিল, আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীই তাঁকে তুলে নিয়ে যায়।

সে সময় তাঁর আইনজীবী হুজাতুল আল ফেসানী সাংবাদিকদের কাছে দাবি করেছিলেন, দুপুর ১২টা ৫০ মিনিটে কোর্ট এলাকা থেকে বের হওয়ার পর রায়সাহেব বাজার থেকে গাড়ির গতি রোধ করে হুম্মামকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়ে। তবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীগুলো বরাবরই এ অভিযোগ অস্বীকার করেছে। সাকা চৌধুরীর ফাঁসির পর বিএনপির নতুন কমিটিতে জায়গা পান তাঁর ছোট ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী। হুমাম বর্তমানে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য।

নিখোঁজ হওয়ার পর জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক হাইকমিশনারের দপ্তরের ওয়েবসাইটে প্রচারিত বিজ্ঞপ্তিতেও হুম্মাম কাদেরের বিষয়টি উল্লেখ করা হয়।


মন্তব্য