kalerkantho


অবকাঠামো উন্নয়নের দাবি

রাজধানীতে ‘আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসব’ শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৪ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীতে ‘আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসব’ শুরু

গতকাল বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসবের উদ্বোধন করা হয়। ছবি : কালের কণ্ঠ

কোথাও চলছিল মেলা। কোথাও প্রাণবন্ত কথামালা। কখনো ভেসে আসছিল গানের সুর। আর এসব আয়োজনের মধ্য দিয়ে একটি গণ্ডির মধ্যে এসেছিলেন প্রবাসী, কূটনীতিক, প্রকৌশলী, চিকিৎসক, গায়ক, নাট্যকার, সাংবাদিক, প্রকাশকসহ বিভিন্ন অঙ্গনের বিশিষ্টজনরা। সব মিলিয়ে একটা উচ্ছ্বাস। এই উচ্ছ্বাস ছিল ‘সিলেটি উচ্ছ্বাস’। এর আনুষ্ঠানিক নাম ‘আন্তর্জাতিক সিলেট উৎসব’।

গতকাল শুক্রবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হয়েছে দুই দিনের এই উৎসব। আগামী ৬ ও ৭ মার্চ উৎসবের দ্বিতীয় পর্ব হবে সিলেটে।

গতকাল সকালে উৎসবের উদ্বোধন করেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অধ্যাপক ড. জামিলুর রেজা চৌধুরী। জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন ঢাকা এই উৎসবের আয়োজক।

উৎসবের প্রথম দিন বিশিষ্টজনরা সিলেটের অবকাঠামো উন্নয়ন, শিক্ষা সম্প্রসারণ, পর্যটন সুবিধা বাড়ানো, শিল্প-কারখানা স্থাপনে জোর দাবি জানিয়েছেন সরকারের কাছে।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জালালাবাদ অ্যাসোসিয়েশন, ঢাকার সভাপতি সি এম তোফায়েল সামি। বক্তব্য দেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী, বিশিষ্ট রাজনীতিক ইনাম আহমেদ চৌধুরী, জাতীয় অধ্যাপক ড. শাহলা খাতুন, নাসির এ চৌধুরী, উৎসব প্রস্তুতি পরিষদের আহ্বায়ক জালাল আহমদ, সংগঠনের সহসভাপতি আবদুল মজিদ চৌধুরী প্রমুখ।

উৎসবে সাংগঠনিক অধিবেশনে সাধারণ সম্পাদকের প্রতিবেদন তুলে ধরেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ জগলুল পাশা। তিনি ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক চার লেন ও সিলেট-সুনামগঞ্জ মহাসড়ক চার লেনে সম্প্রসারণের দাবি জানান। বানিয়াচং থেকে দিরাই-শাল্লা হয়ে মদন পর্যন্ত সড়কটি জাতীয় মহাসড়কে অন্তর্ভুক্ত করে তা প্রয়াত রাজনীতিক সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের নামে রাখার দাবিও জানান তিনি। হাছান রাজার বাড়ি, আসাম টাইপ বাংলো, বালাগঞ্জে মুঘল আমলের মসজিদসহ বিভিন্ন স্থাপনা সংরক্ষণের দাবিও ছিল।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃতী ফুটবলার কায়সার হামিদের স্ত্রী লোপা কায়সার। নিজের প্রকাশিত একাধিক বইয়ের স্টলের সামনে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন, ‘উৎসবে অংশ নিতে পেরে ভালো লাগছে। ’


মন্তব্য