kalerkantho


হজের প্রাক-নিবন্ধন

অনিয়ম তদন্তে মাঠে নামছে সংসদীয় কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০



হজের প্রাক নিবন্ধনে কোনো সিন্ডিকেট জড়িত কি না, তা খতিয়ে দেখতে যাচ্ছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। গত মঙ্গলবার বিকেলে সংসদ ভবনের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে কমিটির বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

বৈঠক শেষে সংসদ ভবনের মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুন। তিনি বলেন, প্রাক নিবন্ধনে অনিয়মের বিষয়টি খতিয়ে দেখতে ‘পর্যবেক্ষণ ও পর্যালোচনা কমিটি’ গঠন করা হয়েছে। যদি কারো হস্তক্ষেপে সিন্ডিকেট হয়ে থাকে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্মেলনে কমিটির সদস্য আসলামুল হক, আমির হোসেন ও মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল জলিল উপস্থিত ছিলেন।

হজের প্রাক নিবন্ধনে কোনো সিন্ডিকেট জড়িত আছে কি না, তা তদন্তে সংসদীয় কমিটির সভাপতি বজলুল হক হারুনকে আহ্বায়ক ও ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব আবদুল জলিলকে সদস্যসচিব করে একটি কমিটি করা হয়েছে। হজ এজেন্সিজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) লিখিত অভিযোগ ও বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রাক নিবন্ধনে অনিয়ম নিয়ে প্রকাশিত খবরের সূত্র ধরে এই তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।  

এ বিষয়ে বজলুল হক হারুন বলেন, ‘বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে আমাদের দেশেও ই-হজ ব্যবস্থাপনা চালু হয়েছে। এবার এক লাখ ৬৮ হাজার প্রাক নিবন্ধিত রয়েছে। এর মধ্যে এক লাখ ২৭ হাজার মুসল্লি হজে যেতে পারবেন।

’ কিন্তু ইতিমধ্যে আরো ৫০ হাজারের বেশি নিবন্ধিত রয়েছে বলে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হচ্ছে।

সংসদীয় কমিটির সদস্য আসলামুল হক বলেন, অটোমেশনে নিবন্ধন হলেও হাব বলতে চাচ্ছে, যারা আগে টাকা জমা দেবে তারা আগে হজে যাওয়ার সুযোগ পাবে। আর যারা টাকা পরে জমা দেবে তারা পরে নিবন্ধনের সুযোগ পাবে। সরকারের নিয়ম অনুযায়ী এ ধরনের কোনো সুযোগ নেই। আর যারা এখন পর্যন্ত নিবন্ধিত হতে পারেনি তারা ভাবছে এর মধ্যে দুর্নীতি হয়েছে। এ বিষয়টি নিয়ে সংসদীয় কমিটির বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। আর অটোমেশনের মাধ্যমে নিবন্ধন সঠিক হচ্ছে কি না, তা উপস্থাপনের জন্য বলা হয়েছে। আগামী বৈঠকে এ ব্যাপারে জানানো হবে।


মন্তব্য