kalerkantho


দুদক-টিআইবি গণশুনানি

লালমনিরহাটে স্থানীয়দের বহু অভিযোগ

লালমনিরহাট প্রতিনিধি   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



‘মালিকানার বৈধ কাগজপত্র থাকার পরও ১৪০ বিঘা জমির দখল পাচ্ছি না। আর সরকার মাঠ পর্যায়ের জরিপে সেই জমির মালিক বানিয়েছে অন্য মানুষকে। ’ গতকাল সোমবার লালমনিরহাটে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) ও ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ (টিআইবি) আয়োজিত গণশুনানিতে এ অভিযোগ তোলেন এক ব্যক্তি। একরামুল হক (৫৮) নামের ওই ব্যক্তি পাটগ্রাম উপজেলার সীমান্তবর্তী লতামারি গ্রামের বাসিন্দা।

লালমনিরহাটের প্রত্যন্ত উপজেলাগুলোর মধ্যে পাটগ্রাম একটি। গতকাল স্থানীয় উপজেলা চত্বরে এই গণশুনানিতে অংশ নেয় সেখানকার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর লোকজন। এ উপজেলার ১০টি সরকারি দপ্তর নিয়ে নানা ধরনের অনিয়ম, দুর্নীতি ও ভোগান্তির চিত্র তুলে ধরে তারা। গণশুনানিতে প্রধান অতিথি ছিলেন দুদক কমিশনার ড. নাসির উদ্দীন আহমেদ।

এর আগে গতকাল সকালে পাটগ্রাম উপজেলা পরিষদ থেকে দুর্নীতিবিরোধী  শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকা প্রদক্ষিণ করে। এরপর চৌরঙ্গী মোড়ে হয় মানববন্ধন।

এ ছাড়া গণশুনানির আগে আলোচনা সভাও হয়।

গণশুনানিতে পাটগ্রাম উপজেলা ভূমি, সেটেলমেন্ট, সাবরেজিস্ট্রার, বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ, হিসাবরক্ষক, প্রকল্প বাস্তবায়ন, সমবায়, সমাজসেবা এবং প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস নিয়ে সেবাগ্রহীতা জনসাধারণের পক্ষ থেকে অভিযোগ তুলে ধরে।


মন্তব্য