kalerkantho


ফিটনেস

লাঠি আর টুলে শক্তপোক্ত শরীর

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



লাঠি আর টুলে শক্তপোক্ত শরীর

শক্তপোক্ত পেটানো শরীরের স্বপ্ন দেখেন অনেকেই। শুধু স্বপ্ন দেখলে তো চলবে না, এ জন্য চাই পরিশ্রম। সে জন্য জিমে যাওয়া প্রয়োজন। আবার জিমে যাওয়ার কথা উঠলেই চলে আসে আর্থিক বিষয়টা। তাহলে কি শক্তপোক্ত শরীর গঠন করা যাবে না? এ অবস্থায় স্বাভাবিকভাবেই হতাশা চলে আসবে। কিন্তু হতাশ হওয়ার দরকার নেই, বাড়িতে থেকেই এমন শরীর গঠন সম্ভব। তাহলে কি বাড়িতে জিমের সরঞ্জামাদি কিনতে হবে? এখানেও আর্থিক বিষয় জড়িত। এবারও হতাশা ঘিরে ধরলে তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কোনো কারণ নেই। কেননা যে ধরনের ব্যায়াম নিয়ে আলোচনা করা সেখানে আর্থিক বিষয়টা মোটেও জরুরি নয়। একটি লাঠি আর একটি টুলের ব্যবস্থা করতে পারলেই হবে।

জাম্পিং জ্যাক : ঘরের মেঝেতে একটি নরম কাপড় বিছিয়ে তার ওপর দুই পায়ের মাঝে একটু ফাঁকা রেখে দাঁড়াতে হবে।

এবার দুই হাতে ধরা লাঠি মাথার ওপরে রেখে ওপরের দিকে লাফিয়ে উঠতে হবে। লাফিয়ে শূন্যে থাকার সময় দুই পা একত্রে করে আবার নামার সময় ফাঁকা করে নামতে হবে। প্রথম এক সপ্তাহে এই অনুশীলন ৩০ বার করে করতে হবে। এর পরে সময় বাড়িয়ে এক মিনিট করতে হবে। এভাবে তিন থেকে চারবার করতে হবে। প্রতিবার শেষে এক মিনিট বিশ্রাম নেওয়া যেতে পারে। লাফিয়ে নামার সময় খেয়াল রাখতে হবে শব্দ যেন কম হয়। এটাকে সফট ল্যান্ডিং বলে।

মাউন্টার ক্লাইম্বার : প্রথমে একটি টুল জোগাড় করতে হবে। তবে খেয়াল রাখতে হবে টুলের উচ্চতা যেন ১২ থেকে ১৪ ইঞ্চির মধ্যে হয়। টুলের ওপর পুশআপ দেওয়ার ভঙ্গিতে উপুড় হয়ে ভর দিয়ে দাঁড়াতে হবে। এবার পাহাড়ে ওঠার দৃশ্য মনে করে নিলে ভালো হয়। হাতের ওপর ভর রেখে এক হাঁটু ভাঁজ করে বুকের কাছে আনতে হবে। সময় ব্যয় না করে পা বদল করতে হবে। অর্থাৎ অন্য হাঁটু বুকের কাছে এনে আগের হাঁটু সোজা অবস্থায় রাখতে হবে। এভাবে ৩০ সেকেন্ড অনুশীলন করতে হবে। তিন সপ্তাহ এভাবে চালানোর পর অনুশীলনের সময় বাড়িয়ে এক মিনিট করতে হবে। এভাবে তিন-চারবার অনুশীলন চালাতে হবে। প্রতিবার শেষে একবার করে বিশ্রাম নেওয়া যেতে পারে।


মন্তব্য