kalerkantho


‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ পালন হচ্ছে ১ মার্চ

সরোয়ার আলম   

২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ পালন হচ্ছে ১ মার্চ

নানা ঘটনা-দুর্ঘটনায় সারা দেশে গত ২৫ বছরে এক হাজার ১৩৯ পুলিশ সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।

সেসব ঘটনায় মামলা হলেও বিচারকাজ তেমন একটা গতি পায়নি। এ নিয়ে ক্ষোভ আছে সংশ্লিষ্টদের পরিবারের সদস্যদের মধ্যে। আবার সংসারের উপার্জনক্ষম মানুষটিকে হারিয়ে নিদারুণ কষ্টে আছে স্বজনরা। বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর প্রয়াত সেসব সদস্যকে প্রতিবছর বিশেষভাবে স্মরণের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

দেশে প্রথমবারের মতো আগামীকাল বুধবার ১ মার্চ ‘পুলিশ মেমোরিয়াল ডে’ হিসেবে পালনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। এখন থেকে প্রতিবছরই দিবসটি সারা দেশে গুরুত্ব দিয়ে পালন করা হবে। ইতিমধ্যে মিরপুর পুলিশ স্টাফ কলেজসহ জেলায় জেলায় স্মৃতিস্তম্ভ নির্মাণ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গত ২৫ বছরে সারা দেশে ঘটনা-দুর্ঘটনায় এক হাজার ১৩৯ পুলিশ সদস্য প্রাণ হারিয়েছেন। তাঁদের মধ্যে মানবতাবিরোধী অপরাধে দণ্ডিত জামায়াতের শীর্ষপর্যায়ের নেতাদের বিচারের রায় বাতিল ও ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ঘিরে বিএনপি-জামায়াত জোটের আন্দোলনকালে প্রাণ হারান ১২৮ পুলিশ সদস্য।

পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হকের প্রত্যক্ষ তত্ত্বাবধানে সারা দেশের পুলিশ ইউনিটগুলো আগামীকাল দিবসটি গুরুত্ব দিয়ে পালন করবে। তা ছাড়া কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকায়, রেঞ্জ এবং জেলা পর্যায়েও দিবসটি গুরুত্ব দিয়ে পালন করা হবে। আগামীকাল সকালে পুলিশ স্টাফ কলেজে প্রাণহানির শিকার পুলিশ সদস্যদের পরিবারকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। একই সঙ্গে পরিবারের সদস্যদের হাতে উপহারসামগ্রী, ক্রেস্ট ও সম্মাননাপত্র তুলে দেওয়া হবে। স্মৃতিস্তম্ভ পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে।

পুলিশের মহাপরিদর্শক এ কে এম শহীদুল হক এ প্রসঙ্গে বলেন, ‘আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন ও অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিধানে পুলিশের গৌরবোজ্জ্বল ভূমিকা রয়েছে। কর্তব্য পালন করতে গিয়ে প্রতিবছরই অনেক পুলিশ সদস্য নিহত হন। আমরা তাঁদের কাছে চিরঋণী। তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো আমাদের নৈতিক দায়িত্ব। ’ আইজিপি বলেন, ‘যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, অস্ট্রেলিয়া, শ্রীলঙ্কা, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে একটি দিন নির্বাচন করে নিহত পুলিশ সদস্যদের স্মরণ করা হয়। এবার থেকে আমরাও নিহত পুলিশ সদস্যদের স্মরণে ১ মার্চ বিশেষ দিন হিসেবে পালন করব। প্রতিবছর এই দিনে আমরা তাঁদের শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করব। তাঁদের পরিবারের সদস্যদের সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নেওয়া হচ্ছে। এমনকি তাঁদের সন্তান বা স্বজনদের চাকরিও দেওয়া হচ্ছে। ’

পুলিশ সদর দপ্তরের ডিআইজি পদমর্যাদার এক কর্মকর্তা কালের কণ্ঠকে জানান, ১ মার্চ দিবসটি পালনের অংশ হিসেবে মিরপুরে পুলিশ স্টাফ কলেজে নিহত পুলিশ সদস্যদের পরিবারকে সংবর্ধনা দেওয়া হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘পুলিশ হত্যাকাণ্ডের অনেক মামলার তদন্ত এখনো শেষ হয়নি। ’


মন্তব্য