kalerkantho


এরশাদ বললেন

আমি সামরিক শাসক নই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘আমি সামরিক শাসক নই। বিচারপতি সাত্তার সামরিক আইন জারি করেছিলেন।

আমি সেদিন ব্যারাকে ফিরে যেতে চেয়েছিলাম। ’

গতকাল রবিবার গুলশানে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তর আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ দাবি করেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে এরশাদ বলেন, ‘ক্ষমতা হস্তান্তরের জন্য ১৯৮৪ সালে নির্বাচন দিয়েছিলাম। তখন কেউ নির্বাচনে আসেনি। তাই ১৯৮৬ সালে জাতীয় পার্টি গঠন করতে বাধ্য হয়েছিলাম। আর ক্ষমতায় ছিলাম বিধায় এ দেশে আমূল পরিবর্তন আনতে পেরেছিলাম। সবই আল্লাহর ইচ্ছা। ’

আক্ষেপ করে এরশাদ বলেন, ‘তোমরা যারা আমাকে স্বৈরাচার বলে আখ্যা দাও, আমি দেশের জন্য যে উন্নয়ন ও কাজ করেছি তা তোমরা করতে পারনি। আজকে যে রাস্তার ওপর ফ্লাইওভার নির্মিত হচ্ছে সে রাস্তা আমার নির্মাণ করা।

যে পদ্মা সেতু নির্মিত হচ্ছে সে মাওয়া বিশ্বরোডও আমার শাসনামলে করা। ’

এরশাদ বলেন, ‘এই স্বৈরাচারই ১৯৮৬ সালে সংসদে বিল পাস করেছিল—সংসদসহ সব অফিস-আদালতে বাংলা ভাষার প্রচলন করতে হবে। শহীদ মিনার ভঙ্গুর অবস্থায় ছিল, তার পূর্ণাঙ্গ সংস্কার আমি স্বৈরাচারই করেছিলাম। স্মৃতিসৌধ সংস্কার ও শহীদ বুদ্ধিজীবী মাজার আমি করেছিলাম। ’

জাতীয় পার্টি ঢাকা মহানগর উত্তরের আহ্বায়ক এস এম ফয়সল চিশতির সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধী দলের নেতা রওশন এরশাদ, কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের, মহাসচিব এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার, প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সাইদুর রহমান টেপা, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, আজম খান প্রমুখ।


মন্তব্য