kalerkantho


‘দেয়ালমুক্ত’ হলেন আওয়ামী লীগ নেতা

ঢাকায় তলব এমপিকে

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



জমি দখলের জন্য খুলনার পাইকগাছার সংসদ সদস্য দেয়াল তুলে বন্দি করে ফেলেছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল আজিজ গোলদারের পরিবারকে। নিজ বাড়িতে ঢুকতে ও বের হতে তাদের ব্যবহার করতে হচ্ছিল বাঁশের মই।

দেয়াল ডিঙানোর ঝুঁকি এড়াতে কেউ কেউ প্রাচীরের নিচে সুড়ঙ্গ করে যাতায়াত করছিল। এ অমানবিক কর্মের সচিত্র প্রতিবেদন গণমাধ্যমে প্রচার হলে অবশেষে মিলেছে পরিত্রাণ। স্থানীয় প্রশাসন গতকাল রবিবার ভেঙে দিয়েছে এমপির দেয়াল। আর তাতেই মুক্ত জীবন ফিরে পেয়েছে পরিবারটি। আর সংসদ সদস্যকে এ ঘটনায় তলব করা হয়েছে ঢাকায়।

পাইকগাছা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফকরুল হাসান বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে দেয়াল ভেঙে ফেলা হয়েছে। জমি নিয়ে যেহেতু উভয় পক্ষের মধ্যে মামলা আছে তাই কাগজপত্র দেখে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গত বছরের জানুয়ারিতে পাইকগাছায় আব্দুল আজিজের বাড়ির চারপাশে ৫০ শতক জমি নিজেদের দাবি করে ১০ ফুট উঁচু দেয়াল তুলে দেন খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য শেখ মো. নূরুল হক। এতে দেয়ালের ভেতর আটকে পড়ে আব্দুল আজিজের পরিবার।

তাদের মই লাগিয়ে দেয়ালের ওপর দিয়ে এবং গর্ত খুঁড়ে দেয়ালের নিচ দিয়ে চলাচল করতে হতো। এক বছর ধরেই এমন অবস্থা চলছিল। আব্দুল আজিজ পাইকগাছা পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। একটি পরিবারের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিতে নেওয়া এ অমানবিক পদক্ষেপে প্রতিক্রিয়া তৈরি হলেও প্রতিকার মিলছিল না।

গত কিছুদিনে দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে পাইকগাছার এ ঘটনা প্রকাশ পেলে প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও আওয়ামী লীগ নেতারা তত্পর হয়ে ওঠেন। গতকাল দুপুর ১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার উপস্থিতিতে দেয়ালটির ১০ ফুট অংশ ভেঙে পরিবারটির জন্য যাতায়াতের পথ তৈরি করা হয়। পরে ওপর থেকে নির্দেশনা পেয়ে দ্বিতীয় দফায় দেয়ালের বাকি অংশ ভেঙে ফেলা হয়। বুলডোজার দিয়ে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় সব প্রতিবন্ধকতা।

দলীয় সূত্র জানিয়েছে, ন্যক্কারজনক এ ঘটনায় অভিযুক্ত সংসদ সদস্য শেখ মো. নূরুল হককে তলব করা হয়েছে ঢাকায়। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের তাঁকে ডেকে পাঠিয়েছেন।


মন্তব্য