kalerkantho


বিইআরসিকে নিয়ে গণশুনানি করবে সিপিবি ও বাসদ

মঙ্গলবারের হরতালে বিএনপিসহ বিভিন্ন সংগঠনের সমর্থন

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বিইআরসিকে নিয়ে গণশুনানি করবে সিপিবি ও বাসদ

গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত প্রত্যাহারের দাবিতে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি) ও বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি মঙ্গলবার রাজধানীতে আধাবেলা হরতাল ডেকেছে।

এ হরতালে সমর্থন জানিয়েছে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল (বিএনপি) ও আরো কিছু সংগঠন।

জ্বালানি খাতের তদারককারী সংস্থা বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) ভূমিকা নিয়ে গণশুনানি করার ঘোষণাও দিয়েছে সিপিবি-বাসদ।

গতকাল শনিবার রাজধানীর পুরানা পল্টনে মুক্তি ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে হরতালের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেন সিপিবি সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম। এর আগে শুক্রবার প্রেস ক্লাবে এক কর্মসূচিতে আধাবেলা হরতাল ডাকা হবে বলে জানানো হয়।

অর্থমন্ত্রী ও বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্যের সমালোচনা করে সিপিবি সভাপতি বলেন, স্বাধীনভাবে কাজ করার কথা বিইআরসির। কিন্তু তাদের বক্তব্যে থলের বেড়াল বেরিয়ে গেল। তিনি বলেন, গ্যাসের দাম বাড়িয়ে, জনগণকে দুর্ভোগে ঠেলে দিয়ে এ খাতে সমতা ও সামঞ্জস্য আনা সম্ভব নয়। ভাঁওতাবাজির বক্তব্য না দিয়ে সমাজে বিদ্যমান বৈষম্য কমিয়ে সমতা বিধানের উদ্যোগ নিতে হবে।

বাসদ নেতা খালেকুজ্জামান বলেন, সিলিন্ডার-গ্যাসের বিক্রি বাড়ানোর জন্য পাইপলাইনে গ্যাস-সরবরাহ বন্ধ করার উদ্যোগ নিচ্ছে সরকার। বাংলাদেশের জ্বালানি খাত বহুজাতিক কম্পানির হাতে আগেই তুলে দেওয়া হয়েছে।

এখন ব্যবসায়ীদের ব্যবসা ও মুনাফা নিশ্চিত করতে দফায় দফায় গ্যাসের দাম বাড়ানো হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তৃতা দেন বাসদের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান। উপস্থিত ছিলেন সিপিবি নেতা সাজ্জাদ জহির চন্দন, লক্ষ্মী চক্রবর্তী, অনিরুদ্ধ দাশ অঞ্জন, রফিকুজ্জামান লায়েক, আহসান হাবিব লাবলু ও কাফি রতন; বাসদ নেতা বজলুর রশীদ ফিরোজ, রাজেকুজ্জামান রতন, জাহেদুল হক মিলু, আব্দুর রাজ্জাক, খালেকুজ্জামান লিপন ও শম্পা বসু।

আধাবেলার (সকাল ৬টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত) হরতালে সমর্থন জানিয়েছে বিএনপি। গতকাল সন্ধ্যায় দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

হরতাল কর্মসূচিতে সমর্থন জানিয়েছে সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টি, গার্মেন্টস শ্রমিক ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র, নাগরিক পরিষদ, দুর্নীতি প্রতিরোধ আন্দোলন, জনমঞ্চ ও বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন।

তেল-গ্যাস কমিটির অবস্থান কর্মসূচি

হরতালে সমর্থন জানিয়েছে তেল-গ্যাস-খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে গণ-অবস্থান কর্মসূচিতে সমর্থনের ঘোষণা দেন কমিটির সদস্যসচিব অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ। বিশেষজ্ঞ ও সাধারণ মানুষের সম্মতি নিয়ে বিদ্যুৎ খাতের মহাপরিকল্পনা ঘোষণার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান তিনি। জাতীয় কমিটির আহ্বায়ক শেখ মুহাম্মদ শহিদুল্লা এতে সভাপতিত্ব করেন। বক্তৃতা দেন বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির নেতা বহ্নিশিখা জামালী, গণসংহতি আন্দোলনের সমন্বয়ক ফিরোজ আহমেদ, গণতান্ত্রিক বিপ্লবী পার্টির সাধারণ সম্পাদক মোশরেফা মিশু প্রমুখ। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতের জন্য সরকারের মহাপরিকল্পনাকে স্ববিরোধী আখ্যা দিয়ে তা বাতিলের দাবি জানান বক্তারা।

সিলেটে বিক্ষোভ : গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে গতকাল বিকেলে সিলেট নগরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাসদ। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাসদ সিলেট জেলা সমন্বয়ক আবু জাফর।

মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি ডিসিসিআইয়ের

গৃহস্থালি ও শিল্প খাতে দুই ধাপে গ্যাসের দাম বাড়ানোর ফলে ব্যবসায় খরচ বাড়বে। পাশাপাশি মূল্যস্ফীতি বাড়বে বলেও মনে করে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)। সার্বিক অবস্থা বিবেচনা করে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি কমাতে সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনার দাবি জানিয়েছে তারা। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ডিসিসিআই এ দাবির কথা জানায়।


মন্তব্য