kalerkantho


গম্ভীরায় মুগ্ধ সিলেটের শ্রোতারা

বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসব

সিলেট অফিস   

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



অনুষ্ঠান শুরু হবে সন্ধ্যার পর। কিন্তু বিকেল থেকেই হাছন রাজা মঞ্চের আশপাশে দর্শনার্থীর ভিড়।

সন্ধ্যা পর্যন্ত চলল সেট প্রস্তুতির কাজ। চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী গম্ভীরা গানের সঙ্গে তেমন একটা পরিচিতি নেই সিলেটের মানুষের। যা এক-আধটু দেখেছেন টেলিভিশনের পর্দায়। সরাসরি দেখার সুযোগ যেন কেউই ছাড়তে চাইছে না। অবশেষে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার পর দর্শনার্থীদের দর্শক সারিতে যাওয়ার সুযোগ দেওয়া হলো। এতক্ষণ আশপাশে ভিড় জমানো লোকজন রীতিমতো প্রতিযোগিতা করে গিয়ে বসল আসনে। সন্ধ্যা ৬টা ৪১ মিনিটে নানাকে খুঁজতে খুঁজতে আলো ঝলমলে মঞ্চে উঠলেন নাতি। কিছুক্ষণ পর নানার অবয়ব নিয়ে মঞ্চে এলেন আতাউর রহমান মিন্টু।

আতাউর রহমান মিন্টু ও তাঁর দলের পরিবেশনার মধ্য দিয়ে শুরু হয় দিনের সাংস্কৃতিক আয়োজন।

ঐতিহ্যবাহী গম্ভীরা গান শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মন্ত্রমুগ্ধ হয়ে দেখল শহুরে দর্শকরা।

গতকাল শনিবার সিলেটে অনুষ্ঠিত বেঙ্গল সংস্কৃতি উৎসবের চতুর্থ দিনে মূল মঞ্চের অনুষ্ঠানের শুরুটাই ছিল এমন। সকাল থেকে কালি ও কলম সাহিত্য সম্মেলনে দেশ-বিদেশের কবি-সাহিত্যিকরা বিভিন্ন অধিবেশনে অংশ নিলেও সন্ধ্যায় গম্ভীরার সুরের মূর্ছনা যেন সাধারণ দর্শক-শ্রোতাদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে।

আজ রবিবার সকাল সাড়ে ১০টায় সৈয়দ মুজতবা আলী মঞ্চে শুরু হবে কালি ও কলম সাহিত্য সম্মেলনের শেষ দিনের কার্যক্রম। আজ প্রথম অধিবেশনে ‘আজকের শিল্পভাষা-আর্ট, পারফরম্যান্স ও কবিতায় নির্মাণ’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।


মন্তব্য