kalerkantho


পিলখানা ট্র্যাজেডি

সবাই পেলেও প্লট মেলেনি শহীদ নূরুল ইসলাম পরিবারের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সবাই পেলেও প্লট

মেলেনি শহীদ নূরুল

ইসলাম পরিবারের

২০০৯ সালে সংঘটিত পিলখানা হত্যাযজ্ঞের পর শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের পরিবারের সবাইকে চার কাঠা করে প্লট দেওয়া হলেও এখনো প্লটের দেখা পাননি শহীদ সুবেদার মেজর নূরুল ইসলামের পরিবার।

নূরুল ইসলামের পরিবারের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন প্লট দেওয়ার জন্য। কিন্তু সেই প্লট আজ পর্যন্ত মিলল না। প্লট দেওয়ার ক্ষেত্রে চলছে গড়িমসি। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বিজিবিকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেওয়ার কথা বলা হলেও এখনো কাঙ্ক্ষিত সেই প্লটের দেখা পাননি তাঁরা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিজিবির অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাহফুজুর রহমান গত বৃহস্পতিবার রাতে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘শহীদ সেনা কর্মকর্তাদের পরিবার ডিওএইচএসের মাধ্যমে প্লট পেয়েছেন। শহীদ নূরুল ইসলামের পরিবারও পাওয়ার যোগ্য। তাঁদের সব প্রাপ্যই তাঁরা পাবেন। প্লটের বিষয়টি বর্তমানে রাজউকের সক্রিয় বিবেচনাধীন। আশা করছি শিগগিরই তাঁরা সেটি পাবেন। ’

২০০৯ সালের ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি ‘বিডিআর’ বিদ্রোহের ঘটনায় ৫৭ সেনা কর্মকর্তা নিহত হন।

ওই সময় বিডিআরের একমাত্র সদস্য সুবেদার মেজর নূরুল ইসলাম বিদ্রোহী সৈনিকদের বিরুদ্ধাচারণ করায় প্রাণ হারান।

নূরুল ইসলামের ছেলে আশরাফুল ইসলাম হান্নান জানান, প্লট দেওয়ার বিষয়ে বিজিবি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানায়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় গণপূর্ত মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য লিখে। ২০১৪ সালের ১২ জুন গণপূর্ত মন্ত্রণালয় থেকে রাজউকের চেয়ারম্যানের কাছে পাঠানো হয়। এরপর প্লটের বিষয়ে আর কোনো অগ্রগতি নেই।

জানা যায়, সততা ও সাহসিকতা নিয়ে দায়িত্ব পালন করায় নূরুল ইসলাম চারবার ডিজি পদক পান। বিদ্রোহের দিন পিলখানায় উপস্থিত থাকা অন্য সুবেদার মেজররা বিদ্রোহের পক্ষে অবস্থান নিলেও ব্যতিক্রম ছিলেন নূরুল ইসলাম।


মন্তব্য