kalerkantho


ডিএনসির সংবাদ সম্মেলন

সিসিটিভির ‘নিরাপত্তায়’ চলছে মাদক বাণিজ্য

ঢাকায় মাদকাসক্তদের ২০ শতাংশই নারী

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সাধারণত বাসাবাড়ি বা প্রতিষ্ঠানের নিরাপত্তায় লাগানো হয় ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরা বা সিসিটিভি। এখন এই সিসিটিভির ‘নিরাপত্তা’ নিয়ে চলছে মাদক বাণিজ্য।

মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের বাসাবাড়ি বা আস্তানায় যাতায়াতের রাস্তায় এগুলো স্থাপন করছে। মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনার বিষয় সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে আগেভাগে জেনে পালিয়ে যাওয়ার উদ্দেশ্যেই এমন অভিনব কায়দা বেছে নেওয়া হচ্ছে। ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জে একাধিক মাদক স্পটে অভিযান চালাতে গিয়ে এমন চিত্র দেখতে পেয়েছেন মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (ডিএনসি) কর্মকর্তারা।

ডিএনসির পরিচালক (অপারেশনস ও গোয়েন্দা) সৈয়দ তৌফিক উদ্দিন আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, বর্তমানে সারা দেশে মাদকাসক্তের সংখ্যা ৫০ লাখের বেশি। এদের ৮৫ শতাংশের বয়স ১৫ থেকে ২৯ বছরের মধ্যে। ঢাকায় মোট মাদকাসক্তের ২০ শতাংশই নারী। এদের বেশির ভাগই ইয়াবায় আসক্ত।     

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলে ডিএনসির সভাকক্ষে মাসিক এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন অধিদপ্তরের পরিচালক (চিকিৎসা ও পুনর্বাসন) মফিদুল ইসলাম, পরিচালক (নিরোধ শিক্ষা) কে এম তারিকুল ইসলাম, প্রধান রাসায়নিক পরীক্ষক ড. দুলাল কৃষ্ণ সাহাসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

সৈয়দ তৌফিক উদ্দিন বলেন, একশ্রেণির মাদক ব্যবসায়ী সিসি ক্যামেরা লাগিয়ে ইয়াবাসহ নানা মরণ নেশার কারবার চালিয়ে যাচ্ছে। সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ ও পুরান ঢাকার রথখোলায় অভিযানকালে সিসিটিভি নিয়ন্ত্রিত মাদক কারবারের চিত্র ধরা পড়ে। সেখান থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ একাধিক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়। ওই বাড়ির বিভিন্ন পয়েন্টে ১৪টি সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা ছিল।

ডিএনসির পরিচালক জানান, ইতিমধ্যে সারা দেশে তিন হাজার ১০০ জনের মতো মাদক ব্যবসায়ীর একটি তালিকা হালনাগাদ করা হয়েছে। মাদক ব্যবসার গডফাদারদের বেশির ভাগই বেশ প্রভাবশালী। তাদের ডালপালা এত বেশি যে কেউ গ্রেপ্তার হলেও তাদের মাদক কারবারে কোনো প্রভাব পড়ে না। গ্রেপ্তারকৃতরাও আইনের ফাঁকফোকর দিয়ে অল্প দিনেই জামিনে মুক্তি পায়।  

মাদক নিরাময় কেন্দ্র আহসানিয়া মিশনের কাউন্সিলর জান্নাত ফেরদৌস জানান, আহসানিয়া মিশনে প্রায় ১৬৭ জন মাদকাসক্ত নারী চিকিৎসা নিয়েছে।


মন্তব্য