kalerkantho


সংসদে প্রশ্নোত্তর

‘অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে বাধা দিচ্ছে কিছু ক্ষমতাবান’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কাজে কিছু ক্ষমতাবান দুষ্কৃতকারী বাধা দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে লিখিত প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ অভিযোগ করেন।

জাতীয় পার্টির সদস্য শওকত চৌধুরীর প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী জানান, সরকার দেশে গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বন্ধ করতে তৎপর। গ্যাসের অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে নিরপেক্ষভাবে কাজ করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তবে কিছু ক্ষমতাবান দুষ্কৃতকারী এ কাজে বাধা প্রদান করছে। তিনি বলেন, গ্যাস ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানিগুলোর গঠন করা ভিজিল্যান্স টিম নিয়মিত অবৈধ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে থাকে। এ ছাড়া চুরি বা অবৈধ সংযোগ উচ্ছেদের জন্য জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে একটি আন্তমন্ত্রণালয় কেন্দ্রীয় কমিটিসহ জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে জেলা কমিটি এবং উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে উপজেলা কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি সম্মিলিতভাবে সরেজমিন পরিদর্শন করে গ্যাস আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করে।

আওয়ামী লীগের সদস্য বেগম সানজিদা খানমের প্রশ্নের জবাবে নসরুল হামিদ জানান, বর্তমান সরকার সবার জন্য বিদ্যুৎ সুবিধা নিশ্চিত করতে নতুন বিদ্যুেকন্দ্র নির্মাণ পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। এ পরিকল্পনা বাস্তবায়নের মাধ্যমে ২০২১ সালের মধ্যে উৎপাদনক্ষমতা ২৪ হাজার মেগাওয়াটে উন্নীত করার কার্যক্রম চলছে।

ঢাকার বাইরে কলকারখানা স্থানান্তর পরিকল্পনা : শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু জানিয়েছেন, ঢাকাকে বাসযোগ্য করার লক্ষ্যে শহরের ভেতর থেকে সব ধরনের কলকারখানা বাইরে স্থানান্তরের পরিকল্পনা রয়েছে।

ঢাকা মহানগরের আবাসিক এলাকা, বিশেষ করে পুরান ঢাকার ঘনবসতিপূর্ণ এলাকা থেকে কেমিক্যাল মজুদাগার বা কারখানা দ্রুত সরানোর জন্য বিসিকের আওতায় কেরানীগঞ্জ উপজেলার সোনাগান্ধা মৌজায় কেমিক্যাল পল্লী স্থাপনের বিষয়টি অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে।


মন্তব্য