kalerkantho


রোল বল বিশ্বকাপের সমাপনীতে প্রধানমন্ত্রী

পদ্মার চরে ক্রীড়াপল্লী ও অলিম্পিক কমপ্লেক্স হবে

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



পদ্মার চরে ক্রীড়াপল্লী ও অলিম্পিক কমপ্লেক্স হবে

বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের পাশে শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে রোল বল ২০১৭-এর সমাপনী অনুষ্ঠানে গতকাল খেলোয়াড় ও দর্শকদের হাত নেড়ে শুভেচ্ছা জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি : বাসস

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আমাদের পদ্মা সেতু তৈরি হচ্ছে। সেই পদ্মার চরেই আমরা একটি উন্নতমানের ক্রীড়াপল্লী গড়ে তুলব, যেখানে বিভিন্ন ধরনের খেলাধুলার আয়োজন এবং প্রশিক্ষণের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এমনকি একটি অলিম্পিক কমপ্লেক্স আমরা ওখানে তৈরি করতে চাচ্ছি। ’

গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে চতুর্থ রোল বল বিশ্বকাপের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামের পাশে শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সে এ অনুষ্ঠান হয়।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা মনে করি, আমাদের যুবসমাজকে যেকোনো ধরনের সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ বা মাদকাসক্তি থেকে দূরে রাখতে হবে। আর সেটা করতে গেলে খেলাধুলা ও সংস্কৃতিচর্চা একান্তভাবে জরুরি। সেই পদক্ষেপই আমরা নিতে চাচ্ছি। ’

বাংলাদেশ রোলার স্কেটিং ফেডারেশন আন্তর্জাতিক রোল বল ফেডারেশনের (আইআরবিএফ) সহযোগিতায় ঢাকায় ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি ‘চতুর্থ রোল বল ওয়ার্ল্ড কাপ-২০১৭’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। প্রধানমন্ত্রী চতুর্থ রোল বল বিশ্বকাপের পুরুষ ও মহিলা বিভাগে চ্যাম্পিয়ন ভারত এবং ইরানের হাতে প্রতিযোগিতার ট্রফি তুলে দেন। তিনি খেলোয়াড়, আয়োজক এবং কর্মকর্তাদের মধ্যেও ব্যক্তিগত ট্রফি বিতরণ করেন।

ভারত পুরুষ বিভাগে ইরানকে আট-সাত গোলে এবং মহিলা বিভাগে ছয়-চার গোলে পরাজিত করে উভয় বিভাগেই শিরোপা জয় করে। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের ১৩ বছর বয়সী হৃদয় সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার গ্রহণ করে। বাংলাদেশ পুরুষ দল প্রতিযোগিতায় চতুর্থ স্থান অধিকার করে। গতবার বাংলাদেশের অবস্থান ছিল সপ্তম। এবারই প্রথমবারের মতো এ খেলায় সর্বোচ্চসংখ্যক ৩৯টি দেশ ও সর্বোচ্চ ৬২৫ জন ক্রীড়াবিদ অংশগ্রহণ করে।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন সিকদার, উপমন্ত্রী আরিফ খান জয় এবং যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান মো. জাহিদ আহসান রাসেল, আন্তর্জাতিক রোল বল ফেডারেশনের সভাপতি পেনিয়া কাবিঙ্গে এবং সাধারণ সম্পাদক রাজু ডাবাদে এ সময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন সিকদার, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি-বিষয়ক সমন্বয়ক এবং চতুর্থ রোল বল বিশ্বকাপের আয়োজন কমিটির প্রধান মো. আবুল কালাম আজাদ বক্তব্য দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আজকাল খেলা মাঠে গড়ালে তা খেলোয়াড়দের মধ্যে কেবল বন্ধুত্ব কিংবা ভ্রাতৃত্বের বন্ধন তৈরি করার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকে না। ‘ট্রাক থ্রি ডিপলোমেসি’র এ সময়ে খেলাও আন্তরাষ্ট্রীয় সম্পর্কের ক্ষেত্রে প্রভাব বিস্তার করতে পারে, আঞ্চলিক সম্পর্ককেও মজবুত করতে পারে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ রাসেল রোলার স্কেটিং কমপ্লেক্সের নামফলক উন্মোচন করেন এবং বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। প্রধানমন্ত্রী সমাপনী অনুষ্ঠানে মনোমুগ্ধকর ডিসপ্লে এবং

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন। সূত্র : বাসস।


মন্তব্য