kalerkantho


ফতুল্লায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুজন নিহত

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় পুলিশের গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) একটি দলের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে দুজন নিহত হয়েছেন। পুলিশের ভাষ্য, নিহতদের মধ্যে একজন দুর্ধর্ষ সন্ত্রাসী মোক্তার হোসেন ওরফে কিলার মোক্তার (৪২) এবং অন্যজন হলেন তাঁর সহযোগী মানিক ওরফে কিলার মানিক (৪২)।

গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় ফতুল্লার পাগলা শাহীবাজার আমতলা এলাকায় এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। এ সময় এক সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) গুলিবিদ্ধ হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক কালের কণ্ঠকে ঘটনাটি নিশ্চিত করেছেন।

ঘটনাস্থলে যাওয়া ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামালউদ্দিন জানান, নারায়ণগঞ্জ জেলা ডিবির একটি দল পাগলা শাহীবাজার আমতলা এলাকায় মাদক উদ্ধার ও সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার করতে গেলে তাদের ওপর চড়াও হয় কিলার মোক্তার ও তাঁর সহযোগীরা। একপর্যায়ে দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলি শুরু হয়ে যায়। এতে ডিবির এএসআই আব্দুল আজিজ গুলিবিদ্ধ হন। মোক্তার ও মানিক ঘটনাস্থলে মারা যান। ঘটনাস্থল থেকে একটি পিস্তল, একটি রিভলবার, সাতটি গুলি, একটি চাপাতি ও একটি ছোরা উদ্ধার করা হয়েছে।

ওসি জানান, দুজনের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এএসআই আব্দুল আজিজকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নিহতদের মধ্যে মোক্তার ফতুল্লা থানার তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তাঁর বিরুদ্ধে হত্যা, চাঁদাবাজি, অস্ত্র, অপহরণ ও মাদক আইনে একাধিক মামলা রয়েছে। এর মধ্যে ফতুল্লা থানায় চারটি, কদমতলীতে একটি, সিদ্ধিরগঞ্জে দুটি মামলা রয়েছে। গত বছরের ২১ অক্টোবর সকালে ফতুল্লার নিশ্চিন্তপুর এলাকায় বিল্লাল নামে এক যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। ওই ঘটনায় বিল্লালের মা শাহিদা বেগম বাদী হয়ে মোক্তার, মানিকসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন।


মন্তব্য