kalerkantho


কুমিল্লায় ডাকাতের হামলা স্বর্ণ ব্যবসায়ী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



কুমিল্লার বুড়িচংয়ে ডাকাতের হামলায় এক স্বর্ণ ব্যবসায়ী নিহত এবং তাঁর দুই সঙ্গী আহত হয়েছেন। ডাকাতেরা তাঁদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল এবং মোবাইল ফোনসেট ও টাকা-পয়সা ছিনিয়ে নিয়ে গেছে।

গত মঙ্গলবার রাত পৌনে ৯টায় উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের লড়িবাগ সিন্দুরিয়া ব্রিজ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত স্বর্ণ ব্যবসায়ীর নাম আবুল কালাম আজাদ। তিনি দেবিদ্বার উপজেলার বেগমাবাদ গ্রামের হাজি মোহাম্মদ জমির আলী মেম্বারের ছেলে। কালাম দেবিদ্বার মমতা জুয়েলার্সের মালিক। এ ঘটনায় বুড়িচং থানায় মামলা করা হয়েছে।

জানা যায়, আবুল কালাম আজাদ (৩৩) মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় তাঁর দুই বন্ধু জামাল ও মিজানকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেলযোগে ব্রাহ্মণপাড়া উপজেলার তেতাভূমি (বাঁশতলা) গ্রামে যান। সেখানে কাজ শেষ করে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেন। পথে রাত পৌনে ৯টায় বুড়িচং উপজেলার রাজাপুর ইউনিয়নের লড়িবাগ সিন্দুরিয়া ব্রিজ এলাকায় পৌঁছালে ১০-১২ জনের একটি ডাকাতদল ব্যারিকেড দিয়ে তাদের মোটরসাইকেল থামায়। ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে তিন মোটরসাইকেল আরোহীকে জিম্মি করে তাদের কাছে থাকা নগদ টাকা, মোবাইল ফোন লুট করে।

হামলাকারীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কালাম ও জামালকে কোপায় এবং তাদের ব্যবহৃত একটি পালসার মোটরসাইকেল, চারটি মোবাইল ফোন, নগদ পাঁচ হাজার টাকা নিয়ে যায়। যাওয়ার সময় তাদের তিনজকে রশি দিয়ে বেঁধে রাস্তায় ফেলে যায়। তাদের মধ্যে মিজান কৌশলে বাঁধন খুলে গুরুতর আহত কালাম ও জামালকে নিয়ে সিএনজি যোগে কুমিল্লা সরকারি হাসপাতাল নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবুল কালাম আজাদকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই ফয়সাল আহম্মেদ মাসুম বাদী হয়ে বুড়িচং থানায় একটি ডাকাতি ও হত্যা মামলা করেন। ঘটনার পরদিন বুধবার বিকেলে কুমিল্লা পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জড়িতদের গ্রেপ্তারের নির্দেশ দেন।


মন্তব্য