kalerkantho


তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীর নিহত

আজ রায় ঘোষণা, সুবিচারের প্রত্যাশা পরিবারের

নিজস্ব প্রতিবেদক, ফরিদপুর   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন নিহত হওয়ার ঘটনায় করা মামলার রায় আজ বুধবার ঘোষণা করা হবে। তারেক মাসুদের পরিবার সুবিচার প্রত্যাশা করছেন।

জানা গেছে, আজ মানিকগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আল-মামুদ ফাইজুল কবীর রায় ঘোষণা করবেন। এর আগে গত রবিবার দুই পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষে আদালত রায় ঘোষণার এ দিন রাখেন।

নিহত তারেক মাসুদের ছোট ভাই হাবিবুর রহমান মাসুদ গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমরা মৃত্যুর বদলে আরেকটি মৃত্যু দেখতে চাই না। তবে বিচারটি এমন হোক যেন দেশবাসীর সঙ্গে আমরাও খুশি হতে পারি। ’

হাবিবুর রহমান আরো বলেন, ‘তারেক মাসুদ শুধু আমাদের পরিবারের সন্তান ছিলেন না। তিনি ছিলেন দেশের কৃতী সন্তান। তাঁর মৃত্যুতে শুধু আমরাই নই, পুরো দেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ক্ষতি কোনোভাবেই পূরণ হওয়ার নয়। ’

তারেক মাসুদের ভাই বলেন, ‘আমরা সুবিচার চাই এ জন্য যে এ রায় যেন যুগান্তকারী হয়।

মানুষকে বিশেষ করে যানবাহনচালকদের কাছে উদাহরণ হিসেবে থাকে, তাদের আরো সচেতন ও দায়িত্বশীল আচরণ করতে শেখায়। একটি অকাল মৃত্যু শুধু পরিবার নয়, পুরো জাতিকে নিঃশেষ করে দিয়েছে। রায়ের মাধ্যমে সবার মাঝে যেন এ উপলব্ধি আসে। ’

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট নিজের কাগজের ফুল চলচ্চিত্রের শ্যুটিংস্পট দেখে মানিকগঞ্জ থেকে মাইক্রোবাসে আরিচা সড়ক দিয়ে ঢাকায় ফিরছিলেন তারেক মাসুদ। সঙ্গে ছিলেন মিশুক মুনীরসহ অন্যরা। ঘিওর উপজেলার জোকা এলাকায় বিপরীতমুখী বেপরোয়া গতির চুয়াডাঙ্গা ডিলাক্স পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে মাইক্রোবাসটির সামনাসামনি সংঘর্ষ হয়। এতে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

এ মামলার একমাত্র আসামি বাসচালক জামির আলীর বিরুদ্ধে পুলিশ আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছে।


মন্তব্য