kalerkantho


সুন্দরগঞ্জে শহীদ মিনার

এমপি লিটনের বড় বোনের গাড়ি ভাঙচুর

গাইবান্ধা প্রতিনিধি   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলা শহীদ মিনারে ফুল দিতে গেলে প্রয়াত এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের বড় বোন আফরোজা বারীর গাড়ি ভাঙচুর করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। আফরোজা বারী আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে শহীদ মিনারে গিয়েছিলেন।

আফরোজা বারীর পরিবারের অভিযোগ, এই হামলার সঙ্গে প্রয়াত এমপির স্ত্রী সৈয়দা খুরশিদ জাহান স্মৃতির ঘনিষ্ঠজন হিসেবে পরিচিত ছাত্রলীগ, যুবলীগের কিছু নেতাকর্মী জড়িত। এ ব্যাপারে সাতজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় আরো ১০-১২ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানা গেছে।

আফরোজা বারীর ভাতিজা মঞ্জুরুল মোর্শেদ বাপ্পি জানান, গতকাল সকালে মহান শহীদ দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের সঙ্গে আফরোজা বারী উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিতে যান। ফুল দেওয়া শেষে তিনি ডিডাব্লিউডি কলেজে নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়ের জন্য হেঁটে যাচ্ছিলেন। এ সময় পেছনে পেছনে আসা তাঁর জিপ গাড়িটি (ঢাকা-মেট্রো-ঘ-১৩-৪২৯৪) উপজেলা সড়কের শিশু নিকেতন কেজি স্কুলসংলগ্ন এলাকায় পৌঁছামাত্রই একদল দুর্বৃত্ত গাড়িতে ভাঙচুর চালায়। তারা গাড়ির ড্রাইভার নাহিদ মিয়াকে সিট থেকে নামিয়ে মারপিট করে। এ সময় গাড়িতে আফরোজা বারীর মেজ মেয়ে মেহের নিগার ও তাঁর স্বামী তরিকুল ইসলাম তরিক বসা ছিলেন। দুর্বৃত্তরা লোহার রড, লাঠি ও ইটপাটকেলের আঘাতে পাঁজেরো গাড়িটির পেছনের গ্লাস ভেঙে যায়।

পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গেলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

মোর্শেদ বাপ্পি আরো জানান, আফরোজা বারীর রাজনীতিতে পদার্পণ একটি মহল মেনে নিতে পারছে না। তাই এই হামলা বলে তাঁরা মনে করেন।

এদিকে পুলিশ সূত্র জানায়, ওই ঘটনার পর থানা ছাত্রলীগ অফিসে তল্লাশি চালিয়ে গাছের ডালসহ বাঁশের লাঠিসোঁটা উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

এ ব্যাপারে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আতিয়ার রহমান জানান, ঘটনাটি শুনেছি। এ ব্যাপারে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য