kalerkantho


সৌদিতে নির্যাতনের শিকার এক নারী শ্রমিক দেশে ফিরেছেন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



দালালের মাধ্যমে সৌদি আরবে কাজে গিয়ে অমানবিক নির্যাতনের শিকার এক নারী শ্রমিককে উদ্ধার করে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। তাঁর বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায়।

গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে দেশে ফিরে হবিগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট লায়লা মেহের বানুর কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে ওই নারী গৃহশ্রমিককে দেশে ফিরিয়ে আনে বাংলাদেশের সিআইডি। গতকাল দুপুরে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছালে সিআইডির ইন্সপেক্টর সুমন মালাকারের নেতৃত্বে তাঁকে নিয়ে আসা হয় হবিগঞ্জ আদালতে। যার প্রচেষ্টায় ওই নারী উদ্ধার হন সেই এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী ছুটে যান তাঁকে দেখতে।   মেয়েকে ফিরে পেয়ে মা-বাবা আনন্দে কেঁদে ফেলেন।

জানা যায়, গত সোমবার নির্যাতনের শিকার ওই নারী শ্রমিককে সৌদি আরবের একটি আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে দেশটির বিচারক তাঁকে বাংলাদেশে পাঠানোর আদেশ দেন। পরে সোমবার রাতে সৌদি আরবের একটি বিমানে বাংলাদেশে পাঠানো হয় তাঁকে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিলেট সিআইডির উপপুলিশ পরিদর্শক সুমন মালাকার বলেন, ‘সৌদি আরবের সব প্রক্রিয়া শেষে মেয়েটিকে দেশে পাঠানো হয়েছে।

মামলার আসামি দালাল শেকুল আহমেদ ও ইয়াকুব মিয়াকে গ্রেপ্তারের জন্য অভিযান চলছে। তারা আত্মগোপনে থাকার কারণে দ্রুত গ্রেপ্তার করতে পারছি না। তবে শিগগিরই তাদের গ্রেপ্তার করা হবে। ’ 

এমপি অ্যাডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী বলেন, ‘সরকারের আন্তরিকতায় ওই নারীকে তাঁর মা-বাবার কাছে ফিরিয়ে দিতে পেরে আমি আনন্দিত। তবে আর কোনো মেয়েকে যাতে হয়রানির শিকার না হতে হয় তার জন্য সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। ’  পারিবারিক সূত্রে আরো জানা যায়, নবীগঞ্জের ওই নারী দালালের খপ্পরে পড়ে গত বছর ৬ ডিসেম্বর গৃহকর্মীর চাকরি নিয়ে সৌদি আরবের দাম্মামে যান। সেখানে তাঁর ওপর শারীরিক ও পাশবিক নির্যাতন চালানো হয়। বিষয়টি ওই নারী শ্রমিক দেশে তাঁর পরিবারের লোকদের জানান। এরপর তাঁরা এমপি কেয়া চৌধুরীর শরণাপন্ন হন। এমপি কেয়া চৌধুরীর সহযোগিতায় সিআইডি পুলিশ সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসের মাধ্যমে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। সেই সঙ্গে ঢাকার নয়াপল্টন এলাকার গ্রিন বেঙ্গল ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড ট্রাভেল এজেন্সি থেকে দালালচক্রের তিন সদস্যকে আটক করে।


মন্তব্য