kalerkantho


সর্বস্তরে বাংলা চালুর দাবি

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

২২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



সর্বস্তরে বাংলা চালুর দাবি

যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বিভাগীয় শহরগুলোতে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। কর্মসূচির মধ্য ছিল প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে ভাষাশহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি, প্রভাতফেরি, মানব শহীদ মিনার, বর্ণমালা মিছিল, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

আলোচনা সভায় বক্তারা সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালু ও শুদ্ধ ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাজশাহীতে বিশাল মানব শহীদ মিনার তৈরির মধ্য দিয়ে পালিত হয় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। খুলনার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হাদিস পার্কে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসের শুরু হয়। সিলেটে একুশের প্রথম প্রহরে বৃষ্টির মধ্যেও শহীদ মিনারে মানুষের ঢল নামে। রংপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাজনৈতিক, সামাজিক

ও সাংস্কৃতিক সংগঠন পুষ্পমাল্য অর্পণ করে। বিস্তারিত আমাদের আঞ্চলিক অফিস থেকে পাঠানো খবরে।

চট্টগ্রামে শহীদ মিনারে মানুষের ঢল : চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিতে মানুষের ঢল নামে। অমর একুশের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর অন্তত এক ঘণ্টা আগে থেকেই লোকে লোকারণ্য হয়ে ওঠে নগরের লাভ লেন থেকে নন্দনকানন হয়ে টিঅ্যান্ডটি অফিসের সামনে দিয়ে সিনেমা প্যালেস পর্যন্ত এলাকা। প্রথম প্রহরে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক দিয়ে প্রথমে শ্রদ্ধা জানান ভূমি প্রতিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী।

এরপর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সিটি করপোরেশনের মেয়র ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন ও কাউন্সিলররা। এ সময় চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকেও শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে একে একে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. রুহুল আমীন, চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি মোহাম্মদ শফিকুল ইসলাম, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ইকবাল বাহার, জেলা প্রশাসক মো. সামসুল আরেফিন, জেলা পুলিশ সুপার নুরে আলম মিনা।

শহীদ মিনারে ফুল দিতে আসে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম জেলা ও মহানগর কমান্ড। তাদের সঙ্গে ছিল মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড জেলা কমিটির সদস্যরা। শহীদ বেদিতে ফুল দিতে ওঠার সময়ই মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ডের দুই পক্ষ হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে।

রাজশাহীতে মানব শহীদ মিনার : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে রাজশাহীতে তৈরি করা হয় বিশ্বের সর্বোচ্চ মানব শহীদ মিনার। এতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ৬০০ শিক্ষার্থী অংশ নেয়। সকাল পৌনে ১০টার দিকে কলেজ মাঠে মানব শহীদ মিনারটি তৈরি করা হয়। এর স্থায়িত্বকাল ছিল ১৫ মিনিট। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় মানব শহীদ মিনার বলে দাবি করেছেন আয়োজকরা। এদিকে প্রথম প্রহরেই রাজশাহী শহীদ মিনারগুলোতে মানুষের ঢল নামে। নগরীর শহীদ মিনারগুলো ফুলে ফুলে ভরে যায়।

রংপুরে দীর্ঘতম প্রভাতফেরি : মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে দীর্ঘতম প্রভাতফেরির আয়োজন করে রংপুরের বুড়িরহাট উচ্চ বিদ্যালয়। দুই কিলোমিটার দীর্ঘ এই প্রভাতফেরিতে প্রতিষ্ঠানের প্রায় এক হাজার ৮০০ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকের সঙ্গে এলাকার মানুষজন কমপক্ষে পাঁচ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে। প্রথম প্রহরে রংপুরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। আওয়ামী লীগ, বিএনপিসহ অন্যান্য রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন পুষ্পমাল্য অর্পণ করে।

খুলনায় সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর দাবি : খুলনায় নানা আয়োজনে ভাষাশহীদদের স্মরণ করা হয়েছে। আলোচনা সভায় বক্তারা সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর দাবি জানিয়েছেন। প্রথম প্রহরে খুলনার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার হাদিস পার্কে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসের শুরু হয়।

সিলেটে শহীদ মিনারে মানুষের ঢল : সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানুষের ঢল নামে। স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীসহ সর্বস্তরের মানুষের ফুলেল শ্রদ্ধায় শহীদ মিনারের বেদি ঢেকে যায়। রাত ১২টা ১ মিনিটে শহীদ মিনার বাস্তবায়ন পরিষদ নেতাদের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শুরু হয় শ্রদ্ধা নিবেদন।

বরিশালে নানা কর্মসূচিতে শহীদ দিবস পালিত : প্রথম প্রহরে বরিশাল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে হাজারো মানুষের ঢল নামে। ১২টা ১ মিনিটে জাতীয় সংসদ ও বরিশাল জেলার সংসদ সদস্যদের পক্ষ থেকে বরিশাল-২ আসনের সংসদ সদস্য তালুকদার মোহম্মদ ইউনুসের নেতৃত্ব বরিশাল সদর আসনের সংসদ সদস্য জেবুনেচ্ছা আফরোজ ও বরিশাল-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মো. টিপু সুলতান শহীদ বেদিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করে দিবসের সূচনা করেন।


মন্তব্য