kalerkantho


উজিরপুরে বসতঘরে বিধবার লাশ

বরিশাল অফিস   

২০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০




উজিরপুরে বসতঘরে বিধবার লাশ

বরিশালের উজিরপুরে নিজ বসতঘরে মিলেছে জাকিয়া পারভিন নামের এক বিধবার লাশ। শনিবার রাত ৯টার দিকে দক্ষিণ হারতারবাড়ী থেকে তাঁর লাশ উদ্ধারের পর পুলিশ ময়নাতদন্তের উদ্যোগ নিয়েছে।

বিধবার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তিনি ধর্ষণের শিকার বলেও ধারণা করছে পুলিশ।

উজিরপুর মডেল থানার ওসি মো. গোলাম সরোয়ার জানান, বিধবা নারীকে রক্তাক্ত অবস্থায় ঘরের মেঝেতে পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা থানায় খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। সুরতহালের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সম্পত্তি ও টাকার জন্য তাঁকে হত্যা করা হতে পারে। আবার ধর্ষণ অথবা শারীরিক সম্পর্কের কারণেও খুন করা হতে পারে। তদন্তশেষে এ বিষয়ে ধারণা পাওয়া যাবে। খুনির ব্যাপারে স্পষ্ট কোনো তথ্য জানাতে পারেনি স্বজনরা।

স্থানীয় লোকজন জানায়, দক্ষিণ হারতা গ্রামের মানিক মাঝির স্ত্রী জাকিয়া পারভিন। স্বামী মারা যাওয়ার পর ছেলে শাহেদুজ্জামান নাইমকে (১৫) নিয়ে বসবাস করছিলেন। শনিবার সন্ধ্যায় ছেলে ঘরে না থাকার সময় হত্যার ঘটনা ঘটেছে। তিন সন্তানের জননী জাকিয়ার সঙ্গে কয়েকজনের অনৈতিক সম্পর্কের অভিযোগও রয়েছে। সেসব বিষয় এ হত্যায় ভূমিকা রাখতে পারে বলে অনেকের অভিমত।

ছেলে শাহেদুজ্জামান নাইম জানায়, মাকে বাড়িতে রেখে সে দোকানে গিয়েছিল। পরে বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিতে গিয়ে ফিরতে দেরি হয়। পরে জানতে পারে মায়ের লাশ পরে থাকার সংবাদ।

এ ঘটনায় বিধবার মেয়ের জামাই আনোয়ার বাদী হয়ে উজিরপুর থানায় মামলা করেছেন। এজাহারে হত্যার কারণ ও খুনিদের ব্যাপারে তিনি ধারণা দিতে পারেননি।


মন্তব্য