kalerkantho


শিক্ষক দিবসে সনত্কুমার বললেন

দক্ষ মানবসম্পদ না হলে কাজের ক্ষেত্র বাড়ে না

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি   

১৯ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



একুশে পদকপ্রাপ্ত লেখক সনত্কুমার সাহা বলেছেন, ‘উচ্চশিক্ষিতের কাজের ক্ষেত্র প্রসারিত না হলে অধিক শিক্ষিতের বেকার পড়ে থাকার আশঙ্কা তৈরি হয়। উপযুক্ত-দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি না হলে কাজের ক্ষেত্রও আশানুরূপ বাড়ে না। আত্মবিরোধের দুই প্রান্তকে মাথায় রেখে আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার ব্যবস্থাপত্র নিয়ে ভাবতে হয়। পরনির্ভরতার সঙ্গে আপসও এড়ানো যায় না। ’ 

দেশের প্রথম শহীদ বুদ্ধিজীবী ড. শামসুজ্জোহা স্মরণে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে আয়োজিত ‘বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা : বিধি ও বিধিলিপি’ শীর্ষক বত্তৃদ্ধতা অনুষ্ঠানে সনত্কুমার সাহা এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে গতকাল শনিবার সকাল ১০টায় রসায়ন বিভাগ এ স্মারক বত্তৃদ্ধতার আয়োজন করে। ১৯৬৯ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর গুলিতে নির্মমভাবে শহীদ হন বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন প্রক্টর ও রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. শামসুজ্জোহা। দিনটি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘শিক্ষক দিবস’ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রসায়ন বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন  উপাচার্য অধ্যাপক ড. মুহম্মদ মিজানউদ্দিন ও কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক সায়েন উদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানে শহীদ ড. জোহার স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন এবং তাঁর রুহের মাগফিরাত কামনা করে মোনাজাত করা হয়। রসায়ন বিভাগের শিক্ষক ড. মো. মাহবুবর রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিভাগের শিক্ষার্থী নিশাত সুলতানা শহীদের জীবনালেখ্য উপস্থাপন করেন।


মন্তব্য