kalerkantho


ভুল চিকিত্সায় ছাত্রীর মৃত্যু

সেই চিকিত্সক রিমান্ডে সেই চিকিত্সক রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



রাজধানীর পল্লবীর একটি ক্লিনিকে ভুল চিকিত্সায় স্কুল ছাত্রীর মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার ভুয়া চিকিত্সক ফারুক হোসেনকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। গতকাল বৃহস্পতিবার তাঁর এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয় বলে জানিয়েছেন পল্লবী থানার ওসি দাদন ফকির। গত মঙ্গলবার রাতে পল্লবীর একটি ক্লিনিক থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

ওসি জানান, ফারুক হোসেন প্রতারক চিকিত্সক। অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে রিমান্ড মঞ্জুর হয়।

ওসি দাদন ফকির বলেন, ফারুক এত দিন নিজেকে পিজি হাসপাতালের চিকিত্সক পরিচয় দিতেন। তবে প্রকৃতপক্ষে তিনি একজন ভুয়া চিকিত্সক। তাঁর ভুল চিকিত্সার কারণেই স্কুল ছাত্রী জান্নাতুল ফেরদৌস (১৬) মারা যায়। সনদ ছাড়াই ফারুক হোসেন অতিথি চিকিত্সক হিসেবে কাজ করছিলেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নিজেকে ‘পিজি হাসপাতালের’ চিকিত্সক পরিচয় দিয়ে ফারুক হোসেন ওই ছাত্রীর অপারেশন করছিলেন। তিনি নিজেকে চিকিত্সক পরিচয় দিলেও তদন্তে এখনো তাঁর কোনো চিকিত্সা সনদ পাওয়া যায়নি।

ওই ছাত্রীর বাবা জয়নাল শেখের অভিযোগ, তাঁর মেয়েকে কার্যত হত্যাই করা হয়। তিনি ওই চিকিত্সকের শাস্তি দাবি করেন।

পরিবার জানায়, পল্লবীর ‘বি’ ব্লকের কালাপানি বেগুনটিলা এলাকায় জান্নাতুলের পরিবারের বসবাস। সে স্থানীয় নাহার একাডেমির নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। তাদের গ্রামের বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের নিশ্চিন্তপুরে। সাত বছর আগে জান্নাতুলের বাঁ হাত ভেঙে গেলে মিরপুর ১২ নম্বরে অবস্থিত রিজার হাসপাতালে চিকিত্সা করানো হয়। বড় হলে অপারেশন করাতে হবে—চিকিত্সকের এই পরামর্শে মঙ্গলবার সকালে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বিকেল ৪টার দিকে অপারেশন থিয়েটারে জান্নাতুলের অবস্থা খারাপ হয়। পরে ঢাকা মেডিক্যালে তার মৃত্যু হয়।


মন্তব্য