kalerkantho


সংসদে সাধারণ আলোচনা

ষড়যন্ত্রে লিপ্ত সব অপশক্তি প্রতিহত করার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকার ও বিরোধী দলের সংসদ সদস্যরা উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত বিএনপি-জামায়াতসহ সব অপশক্তিকে প্রতিহত করার আহ্বান জানিয়েছেন।

গতকাল বুধবার রাতে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রথমে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী ও পরে ডেপুটি স্পিকার অ্যাডভোকেট মো. ফজলে রাব্বী মিয়ার সভাপতিত্বে এই আলোচনা হয়।

সরকারের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে আওয়ামী লীগের মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘দেশের উন্নয়ন বন্ধে ২০১৩ সালে একটি দলের প্রধান বিদেশিদের কাছে চিঠি লিখেছিলেন। এ ষড়যন্ত্র থামেনি, এখনো চলছে। এ ষড়যন্ত্রে জড়িত এ দেশের কিছু মানুষ, তাদের একজন ড. ইউনূস। যিনি সুদখোর হিসেবে পরিচিত। আমার দাবি ড. ইউনূসের মতো সুদখোর, মিথ্যাবাদী, দেশের টাকা আত্মসাৎকারী এবং রাষ্ট্রবিরোধীকে আইনের আওতায় আনা হোক। ’

জিয়াউর রহমানের সমালোচনা করে এ কে এম আওয়াল বলেন, ‘যে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বলতে রাজি নয়, তাকেই (জিয়া) স্বাধীনতার ঘোষক বলে বিএনপি। সেই বিএনপি দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করবে—এটাই স্বাভাবিক। বিএনপি-জামায়াত জনগণের আস্থা হারিয়েছে। ’

খসড়া নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করে পীর ফজলুর রহমান বলেন, প্রস্তাবিত আইনটি নিয়ে প্রবাসীরা আতঙ্কিত।

এ আইনটি পাস হলে তারা সম্পত্তির অধিকার হারাবে। তাই তাদের সমস্যা বিবেচনায় নিয়ে বিলটি সংসদে আনতে হবে।

গণমাধ্যমে অপপ্রচার চলছে দাবি করে এই অপপ্রচার বন্ধে আইন প্রণয়নের দাবি জানিয়ে মো. হাবিবে মিল্লাত বলেন, কোনো মিডিয়া মিথ্যা প্রচার করে থাকলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। এ বিষয়ে আইন না থাকলে আইন করতে হবে।


মন্তব্য