kalerkantho


অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন বাস্তবায়নে ৯ দফা দাবি

‘ডিসিরা যা করছেন তা দুঃখজনক’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মন্ত্রিসভা বৈঠক থেকে প্রত্যাহারকৃত অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইনের খসড়া থেকে একটি ধারা বাদ দিয়ে অবশিষ্ট খসড়া আইনে পরিণত করাসহ ৯ দফা দাবি জানানো হয়েছে। অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন বাস্তবায়ন জাতীয় নাগরিক সমন্বয় সেল এ দাবি জানিয়েছে।

গতকাল বুধবার এই সেলের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ‘অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন ২০০১-এর বাস্তবায়ন পরিস্থিতি এবং করণীয়’ শীর্ষক জাতীয় সংলাপে এ দাবি জানানো হয়।

সিরডাপ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সংলাপে উপস্থাপিত অন্য দাবিগুলোর মধ্যে রয়েছে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অর্পিত সম্পত্তির ‘ক’ তালিকায় প্রকাশিত গেজেটে বাদ পড়া সম্পত্তির সংশোধনীর গেজেট প্রকাশসংক্রান্ত পরিপত্র প্রত্যাহার করা; যেসব ক্ষেত্রে ভুক্তভোগীদের পক্ষে আদালত রায় দিয়েছেন তা কার্যকর করা; ‘খ’ তফসিলভুক্ত সম্পত্তির খাজনা নেওয়ার ক্ষেত্রে তহসিল অফিসের অস্বীকৃতি এবং এসি ল্যান্ড অফিসের অসহযোগিতা বন্ধ করা; জাতীয় পর্যায়ে এবং প্রতিটি জেলায় মনিটরিং সেল গঠন করে অর্পিত সম্পত্তির প্রত্যর্পণ বাস্তবায়ন তদারক করা; আইন মন্ত্রণালয়ের আপিল ট্রাইব্যুনালের রায়ের বিরুদ্ধে সরকারের রিট আবেদনের অনুশাসন প্রত্যাহার করা; অর্পিত সম্পত্তি ট্রাইব্যুনাল থেকে লিখিত জবাবের জন্য সময়ক্ষেপণ বন্ধ করা; যেসব জেলায় এখনো আপিল ট্রাইব্যুনাল গঠন করা হয়নি সেসব জেলায় এই ট্রাইবুনাল গঠন করা।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট সুলতানা কামালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জাতীয় সংলাপে প্রধান অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার। অনুষ্ঠানে রাশেদ খান মেনন বলেন, নাসিরনগরসহ বিভিন্ন জায়গায় যে ঘটনাগুলো ঘটছে এর নেপথ্যে রয়েছে সম্পত্তি।


মন্তব্য