kalerkantho


বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ড

চাকরি স্থায়ী করার দাবিতে বিক্ষোভ ডিজি অবরুদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



উচ্চ আদালতের চূড়ান্ত রায়ের পরও বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ডের অর্ধশত কর্মচারীর চাকরি স্থায়ী না হওয়া এবং বেতন-ভাতা পরিশোধ না করায় বিক্ষোভ করেছেন তাঁরা। গতকাল বুধবার সকাল থেকে দিনভর বিক্ষোভের একপর্যায়ে বোর্ডের মহাপরিচালক আনিস-উল-হক ভূঁইয়াকে তাঁর দপ্তরে অবরুদ্ধ করে রাখেন কর্মচারীরা।

পরে বিকেল ৪টার দিকে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়।

আন্দোলনরত কর্মচারীরা জানান, একটি প্রকল্পের আওতায় ১৯৯০ সালের জুলাইয়ে অস্থায়ীভাবে ৫০ জন কর্মচারীকে নিয়োগ দিয়েছিল রেশম বোর্ড কর্তৃপক্ষ। এরপর ১৯৯৬ সালের নভেম্বরে ওই প্রকল্প শেষ হয়ে যায়। ফলে চাকরি হারান কর্মচারীরা। কিন্তু চাকরি রাজস্ব খাতে অন্তর্ভুক্ত করার দাবিতে উচ্চ আদালতে রিট আবেদন করেন তাঁরা। আদালত তাঁদের চাকরি স্থায়ী করার পক্ষে রায় দেন। সর্বশেষ গত বছরের ৫ ডিসেম্বর আপিলেও এ রায় বহাল রাখা হয়। কিন্তু এখন পর্যন্ত তাঁদের চাকরি স্থায়ী হয়নি। এরই মধ্যে কয়েকজন মারাও গেছেন।

যাঁরা চাকরি করছেন তাঁরাও ঠিকমতো বেতন পাচ্ছেন না। চার মাস ধরে তাঁদের বেতন-ভাতা পরিশোধ করা হয়নি।

কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি গোলাম মর্তুজা বলেন, ‘আদালতের চূড়ান্ত রায়ের পরও তা আমলে নেওয়া হচ্ছে না। ২০১৪ সালের ২ জানুয়ারি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় আমাদের চাকরি রাজস্ব খাতে স্থানান্তরের সম্মতি জানিয়ে চিঠিও দিয়েছে। এতে আর আইনি কোনো বাধাও নেই। কিন্তু আদালতের রায় বাস্তবায়ন করছে না বোর্ড। ’

বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক আনিস-উল-হক ভূঁইয়া বলেন, কর্মচারীদের বেতন-ভাতা রাজস্ব খাতে অন্তর্ভুক্ত করতে মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য