kalerkantho


শিবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে যুবক নিহত

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ   

১৫ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



শিবগঞ্জে বিএসএফের গুলিতে যুবক নিহত

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ওয়াহেদপুর সীমান্তে গত সোমবার রাতে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) গুলিতে এক বাংলাদেশি যুবক নিহত এবং আরেকজন আহত হয়েছেন।

পাঁকা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মজিবুর রহমান জানান, সোমবার রাতে ২০ রশিয়া গ্রামের মোশারফ হোসেনের ছেলে মাসুদ রানা (২২) কয়েকজন সহযোগীসহ ভারতে প্রবেশ করেন।

গরু নিয়ে ফেরার সময় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ মুর্শিদাবাদ জেলার সুতি থানার কামারপাড়াঘাট বিএসএফ ৩৬ ব্যাটালিয়নের চাঁদনিচক ক্যাম্পের সদস্যরা তাঁদের লক্ষ্য করে গুলি ছোড়েন। এতে ঘটনাস্থলে মারা যান মাসুদ। আহত হন একই গ্রামের হালিমের ছেলে আবুল কালাম।

তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ৯ বিজিবির পরিচালক এস এম আবুল এহসান জানান, স্থানীয়ভাবে ঘটনাটি শোনার পর ৩৬ বিএসএফের কমান্ডারের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তাঁরা গুলি চালানের কথা অস্বীকার করেন। তার পরও বিষয়টি অধিকতর নিশ্চিত হতে পতাকা বৈঠকের আহ্বান জানিয়ে চিঠি দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে।

এদিকে রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, কুড়িগ্রামের রৌমারী সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের ছোড়া পাথরের আঘাতে বাংলাদেশি তিন স্কুল ছাত্র আহত হয়েছে। সীমান্তের কাঁটাতারের বেড়ার কাছে গিয়ে মোবাইল ফোনে সেলফি তুলতে গেলে ভারতের শিশুমারা ক্যাম্পের বিএসএফ সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে পাথর ছোড়েন। পাথরের আঘাতে মাথা, কপাল ও চোখে জখম নিয়ে ওই তিন ছাত্র কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার ডিগ্রিরচর সীমান্তে এই ঘটনা ঘটে।

বিএসএফের ছোড়া পাথরের আঘাতে আহত ওই তিনজন হলো রুবেল মিয়া, আশিকুর রহমান ও সাব্বির রহমান। তিনজনই গেন্দার আলগা উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সীমান্তঘেঁষা হবিগঞ্জ গ্রামে তাদের বাড়ি।

জানা গেছে, ১০ স্কুল ছাত্র মিলে ডিগ্রিরচর সীমান্ত এলাকা আন্তর্জাতিক মেইন পিলার নম্বর ১০৫২-এর কাছে কাঁটাতারের বেড়াঘেঁষে মোবাইল ফোনে সেলফি তোলা শুরু করে। এ সময় হঠাৎ ভারতের শিশুমারা বিএসএফ ক্যাম্পের টহলরত সদস্যরা তাদের লক্ষ্য করে পাথর ছুড়তে থাকেন।

এ অবস্থায় সবাই দৌড়ে পালালেও ওই তিন ছাত্র পাথরের আঘাতে আহত হয়। সংশ্লিষ্ট এলাকার ইউপি মেম্বার শাহজাহান ও পল্লী চিকিৎসক সেলিম মিয়া বিএসএফের পাথরের আঘাতে তিন ছাত্র আহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এ ব্যাপারে দাঁতভাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পের কম্পানি কমান্ডার সুবেদার হাসান মিয়া জানান, এ ধরনের কোনো তথ্য তাঁদের কাছে নেই। তা ছাড়া কেউ অভিযোগও করেনি।


মন্তব্য