kalerkantho


লামার দুর্গম এলাকায় গোলাগুলিতে এক সন্ত্রাসী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বান্দরবান   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



বান্দরবানের লামা উপজেলার দুর্গম এলাকায় গতকাল সোমবার বিকেলে সন্ত্রাসীদের সঙ্গে নিরাপত্তা বাহিনীর গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। পরে ঘটনাস্থলে এক সন্ত্রাসীর লাশ পাওয়া গেছে। এদিকে সন্ত্রাসীদের ছোড়া গুলিতে দুই শিশু জখম হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে। বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে লামার রূপসীপাড়া ইউনিয়নের নাইক্ষ্যংমুখপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

সেনাবাহিনীর বান্দরবান রিজিয়নের মুখপাত্র মেজর মেহেদী হাসান জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির একটি সশস্ত্র গ্রুপ চাঁদার জন্য নাইক্ষ্যংমুখপাড়ায় গেলে সেনা সদস্যরা তাদের ঘিরে ফেলেন। এ সময় সন্ত্রাসীরা সেনা সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে মানচিং ম্রো (৮) ও দিনয় ম্রো (৭) নামের দুই শিশু গুলিবিদ্ধ হয়।

মুখে গুলিবিদ্ধ শিশু মানচিংকে চট্টগ্রাম সামরিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গোলাগুলির পর ঘটনাস্থল থেকে এক সন্ত্রাসীর লাশ উদ্ধার হয়েছে, তার বিস্তারিত পরিচয় পাওয়া যায়নি।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সন্তু লারমার নেতৃত্বাধীন জনসংহতি সমিতির একটি গ্রুপ বিভিন্ন এলাকায় চাঁদা আদায় করে আসছে। মিয়ানমার সীমান্ত ঘেঁষা থানচি, লামা ও আলীকদম এলাকায় পার্বত্য জনসংহতি সমিতি ছাড়াও ত্রিপুরা ডেমোক্রেটিক পার্টি ও ম্রো ন্যাশনালিস্ট ডেমোক্রেটিক পার্টির একটি গ্রুপ সক্রিয়। তাদের ভয়ে স্থানীয়রা মুখ না খুললেও সেনাবাহিনী অনুসন্ধান চালাচ্ছিল।

আলীকদম জোনের সেনা সদস্যরা সোমবার তাদের প্রতিহত করতে গেলে গোলাগুলির ঘটনা ঘটে। .


মন্তব্য