kalerkantho


হাইকোর্টের রুল জারি

‘শ্রমিকদের ৫০ কেজির অতিরিক্ত ভার বহন কেন বেআইনি নয়’

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



দেশের বিভিন্ন হিমাগারে শ্রমিকদের ৫০ কেজি ওজনের বেশি ভার বহন কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়েছেন হাইকোর্ট। গতকাল সোমবার বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. সেলিমের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ-সংক্রান্ত রুল জারি করেছেন।

আদালত সূত্র জানায়, দেশের বিভিন্ন হিমাগারে (কোল্ড স্টোরেজ) প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ শ্রমিকের ৫০ কেজি ও নারী শ্রমিকের ৩০ কেজি ওজনের বেশি ভার বহন কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। রুলে একই সঙ্গে শ্রম আইন ও এ-সংক্রান্ত বিধি অনুসরণ করার কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া রুলের জবাব দিতে এবং রাজশাহীর পবা উপজেলা লোড-আনলোড কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের করা আবেদন এক সপ্তাহের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে শ্রম ও কর্মসংস্থান সচিব, প্রধান কারখানা পরিদর্শক, শ্রম বিভাগের পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

রাজশাহীর পবা উপজেলা লোড-আনলোড কুলি শ্রমিক ইউনিয়নের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন মোল্লার করা এক রিট আবেদনে এ রুল জারি করা হয়। রিট আবদেনকারীপক্ষে আইনজীবী ছিলেন ব্যারিস্টার সুহান খান ও জহিরুল ইসলাম।

ব্যারিস্টার সুহান খান সাংবাদিকদের জানান, শ্রম আইনের ৭৪ ধারায় বলা হয়েছে, নির্ধারিত ওজনের বাইরে শ্রমিকদের দিয়ে ভার বহন করা যাবে না। আর এ-সংক্রান্ত বিধিতে বলা হয়েছে, প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষের ৫০ কেজি ও নারী শ্রমিকের ৩০ কেজি ওজনের বেশি ভার বহন করা যাবে না। কিন্তু কোল্ড স্টোরেজগুলোতে ১১০ থেকে ১২০ কেজি ওজনের মতো ভার বহন করতে বাধ্য করা হচ্ছে। এ কারণে গত বছর মার্চে রাজশাহীতে তৌহিদুল ইসলাম নামের একজন শ্রমিক মারা যান।


মন্তব্য