kalerkantho


তিন সড়ক-মহাসড়কে তীব্র যানজট

গাড়ি বিকল চরম যাত্রী দুর্ভোগ

কালের কণ্ঠ ডেস্ক   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



তিন সড়ক-মহাসড়কে তীব্র যানজট

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুরে দীর্ঘ যানজট। ছবিটি গতকাল সকাল ৭টায় তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

গাড়ি বিকল ও দুর্ঘটনার কারণে গতকাল শুক্রবার ভয়াবহ যানজটে দেশের একাধিক সড়ক-মহাসড়ক ছিল স্থবির। এর ফলে চরম ভোগান্তির শিকার হয়েছে হাজারো যাত্রী।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে গাজীপুরের ভোগড়া বাইপাস থেকে কালিয়াকৈরের সূত্রাপুর বোর্ডঘর পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট ছিল দিনভর। মেঘনা-গোমতী সেতুতে দুর্ঘটনার কারণে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে তৈরি হয় ৬০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজট। এ ছাড়া চলাচলের অযোগ্য ময়মনসিংহের ভালুকা-গফরগাঁও সড়কে একাধিক গাড়ি বিকল হয়ে ১৪ ঘণ্টা স্থায়ী যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের মির্জাপুর ও কালিয়াকৈরের বোর্ডঘর এলাকায় মালভর্তি দুটি ট্রাক গতকাল ভোরে বিকল হয়ে পড়ে। এতে মহাসড়কের ওই দুটি পয়েন্টে যানবাহন চলাচল বিঘ্নিত হয়। এর প্রভাবে তৈরি হয় ভয়াবহ যানজট।

জানা গেছে, সাপ্তাহিক ছুটির দিনে বিভিন্ন রুটের ঘরমুখো যাত্রীবাহী বাস ও বনভোজনের গাড়ির আধিক্যের কারণে গতকাল ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে গাড়ির চাপ ছিল বেশি। দুটি পয়েন্টে গাড়ি বিকল হয়ে পড়ায় যানজটের সৃষ্টি হয়। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যানজটও বাড়তে থাকে।

গাজীপুর ভোগড়া বাইপাস থেকে কালিয়াকৈরের বোর্ডঘর পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার এলাকায় যানজটে আটকে থাকে অজস্র গাড়ি। এর ফলে চরম ভোগান্তির শিকার হয় মানুষ। সন্ধ্যার দিকে বিকল ট্রাক দুটি মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নেওয়ার পর যানচলাচলে গতি আসতে থাকে।

কোনাবাড়ী (সালনা) হাইওয়ে থানার ওসি হোসেন সরকার জানান, বিকল হয়ে পড়া ট্রাকগুলো সরিয়ে নেওয়ার পর যানচলাচল শুরু হয়েছে। যানজট নিরসনে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

দাউদকান্দি (কুমিল্লা) প্রতিনিধি জানান, দাউদকান্দির মেঘনা-গোমতী সেতুতে গত বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ট্রাক ও প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষের জের ধরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের উভয় দিকে যানবাহন চলাচল তিন ঘণ্টা বন্ধ থাকে। এর ফলে ভোর থেকে সকাল সাড়ে ১০টা পর্যন্ত কুমিল্লার মাধাইয়া থেকে দাউদকান্দির মেঘনা-গোমতী সেতু পেরিয়ে কাঁচপুর পর্যন্ত ৬০ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। দুর্ভোগের শিকার হয় হাজার হাজার যাত্রী।

দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ ও যানবাহন চালকরা জানায়, বৃহস্পতিবার রাতে দাউদকান্দির মেঘনা-গোমতী সেতুর ওপর একটি অতিরিক্ত মালবাহী ট্রাক ও একটি প্রাইভেট কারের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। দাউদকান্দি ও গজারিয়া হাইওয়ে পুলিশ র‍্যাকার দিয়ে দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে প্রাইভেট কারটি সরিয়ে নিলেও অতিরিক্ত মাল বোঝাই ট্রাকটি সরানো সম্ভব হয়নি। তিন ঘণ্টা পর নারায়ণগঞ্জ সওজের হেভি র‍্যাকার দিয়ে রাত ৩টায় ট্রাকটি সরিয়ে নিলে ধীরে ধীরে যানবাহন চলাচল শুরু হয়। গতকাল দুপুর নাগাদ পরিস্থিতি মোটামুটি স্বাভাবিক হয়ে আসে।

দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশের উপপরিদর্শক রফিকুল ইসলাম বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত ট্রাকটি ছিল অতিরিক্ত পণ্য বোঝাই। এ কারণে সেটি মহাসড়ক থেকে সরিয়ে নিতে বিলম্ব হয়। এর প্রভাবে দীর্ঘক্ষণ মহাসড়কে যানবাহন বন্ধ থাকায় দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়।

দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি তদন্ত আসাদুজ্জামান গতকাল দুপুরে বলেন, ‘যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক করতে জেলা ও হাইওয়ে পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। ’

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের ভাঙাচোরা ভালুকা-গফরগাঁও সড়কে গত বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে একটি কাভার্ড ভ্যান ও বালুবাহী ট্রাকের চাকা দেবে যায়। এর ফলে প্রায় ১৪ ঘণ্টা যানচলাচল বন্ধ থাকে এই সড়কে। ফলে সড়কের দুই ধারে আটকা পড়ে বিপুলসংখ্যক গাড়ি। অবর্ণনীয় ভোগান্তির শিকার হয় যাত্রীরা। পরে পুলিশের সহায়তায় গাড়ি দুটি সরানো হলে গতকাল সকাল ১১টার দিকে যানচলাচল ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হয়ে আসে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তালুকদার কামরুল আহসান তালুকদার এ ব্যাপারে জানান, দুর্ঘটনা ও যানজটের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য