kalerkantho


লালবাগ কেল্লাসংলগ্ন প্রাচীন স্থাপনা ধ্বংস করা হচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



নির্বিচারে পুরান ঢাকার প্রাচীন ও ঐতিহাসিক স্থাপনা ধ্বংস করার প্রতিযোগিতা চলছে। এর ধারাবাহিকতায় এবার লালবাগ কেল্লাসংলগ্ন একটি প্রাচীন ভবন ধ্বংস করা হচ্ছে।

শতবর্ষী ভবনটির অর্ধেকের বেশি ভেঙে ফেলা হয়েছে। ভবনটির বাকি অংশ রক্ষা করতে গত মঙ্গলবার ঢাকার আরবান স্টাডি গ্রুপ ও স্থানীয় লোকজন প্রতিবাদ সভা ও মানববন্ধন করেছে।

জানা গেছে, গোপনীয়ভাবে রাতের আঁধারে পুরান ঢাকার কয়েকটি চক্র ঐতিহাসিক ভবন ভেঙে সেখানে আধুনিক বহুতল স্থাপনা নির্মাণ করছে। এর অংশ হিসেবে মোগল পুরাকীর্তি লালবাগ কেল্লাঘেঁষা ১৬ নম্বর শায়েস্তা খাঁ রোডের শতবর্ষী ঐতিহাসিক ভবনটি ধ্বংসে মেতেছে তারা। কয়েক দিন ধরে গোপনীয়ভাবে ভাঙার কাজ চলছে। মৌখিকভাবে সংরক্ষণের কথা বলা হলেও বাড়ির মালিক প্রকৃতপক্ষে দ্রুত ভাঙার কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন। এই অবস্থায় ভবনটি রক্ষার জন্য গত মঙ্গলবার আরবান স্টাডি গ্রুপের উদ্যোগে বাড়ির সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন করা হয়।

আরবান স্টাডি গ্রুপের প্রধান নির্বাহী তাইমুর ইসলাম কালের কণ্ঠকে বলেন, দেশের ঐতিহাসিক স্থাপনা ও পুরাকীর্তি দেখভাল করার জন্য পুরাতত্ত্ব অধিদপ্তর নামে একটি প্রতিষ্ঠান রয়েছে। কিন্তু তাদের কর্মতৎপরতা অফিস পর্যন্ত সীমাবদ্ধ; যার কারণে পুরান ঢাকার ঐতিহাসিক স্থাপনা একটার পর একটা হারিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, ‘লালবাগ কেল্লাসংলগ্ন ভবনটি রক্ষার জন্য তাদের দ্বারস্থ হয়েছি। কিন্তু তালিকায় নেই বলে তারা এ ব্যাপারে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবে না বলে আমাদের জানিয়ে দেয়। ’

আরবান স্টাডি গ্রুপ সূত্রে জানা যায়, ঐতিহাসিক স্থাপনা রক্ষা করতে হলে সাধারণ মানুষকেও সচেতন হতে হবে। তা ছাড়া কেউ সরকারের অনুমতিবিহীন এ ধরনের স্থাপনা ধ্বংস করলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা করার নজির স্থাপন করা প্রয়োজন।


মন্তব্য