kalerkantho


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় যুবককে গুলি দুর্বৃত্তদের

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় এক যুবককে গুলি করেছে দুর্বৃত্তরা। তাঁর নাম মনিরুজ্জামান মাসুদ (৩০)। গতকাল মঙ্গলবার দুপুর আড়াইটার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের টিচার্স ক্লাবের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে তাঁকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আহত মনিরুজ্জামান মাসুদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া শেষে মাসুদ পর্যটন ব্যবসা করছেন। তিনি জানান, দুর্বৃত্তরা তাঁর ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছিল। তবে পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, ঘটনাটি ছিনতাই কি না, সে ব্যাপারে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক জানান, মনিরুজ্জামান মাসুদ মোটরসাইকেলে করে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে নীলক্ষেতের দিকে যাচ্ছিলেন। দুপুর আড়াইটার দিকে টিচার্স ক্লাবের সামনে পৌঁছালে মোটরসাইকেলে আসা যুবকরা মাসুদের গরিরোধ করে। এ সময় মাসুদের সঙ্গে থাকা পাসপোর্ট ব্যাগ ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলে মাসুদ বাধা দেন। পরে যুবকরা তাঁকে গুলি করে পালিয়ে যায়।

এরপর তাঁকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পকেটে মোবাইল ফোনসেট থাকায় মনিরুজ্জামান খুব একটা জখম হননি। গুলি পিছলে তাঁর ঊরুতে লেগেছে। কে বা কারা এই গুলি চালিয়েছে, তাদের খোঁজার চেষ্টা চলছে। ঘটনাটি ছিনতাই কি না, তাও নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর অধ্যাপক এম আমজাদ আলী বলেন, ‘খোঁজ নিয়ে জানতে পেরেছি দুটি মোটরসাইকেল করে চার যুবক একজনের ব্যাগ নিয়ে টানাহেঁচড়া করেছিল। ব্যাগ না নিতে পেরে গুলি করে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। ’

হাসপাতালে আহত মাসুদ জানান, তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সমাজকল্যাণ বিষয়ে পড়ালেখা করেছেন। তিনি পর্যটন ব্যবসায় জড়িত। তাঁর অফিস পশ্চিম পান্থপথে। মাসুদের বাবার নাম আব্দুল আজিজ। তাঁর বাসা ৫৮/১ মুগদার মদিনাবাগে। জানতে চাইলে মনিরুজ্জামান মাসুদ বলেন, ‘তারা চারটি মোটরসাইকেলে ছয়-সাতজন আসে। ছিনতাই ছাড়া আর কিছু বলে মনে হচ্ছে না। ’


মন্তব্য